অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেল স্বামী


213 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেল স্বামী
জানুয়ারি ১৭, ২০১৯ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেল স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন। পৌর এলাকার কান্দাপাড়া মহল্লার জামাত আলীর ছেলে রাজুর তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ইতি খাতুনকে (২০) বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে স্বামীসহ পরিবারের লোকজন পোতাজিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ সময় হাসপাতালের চিকিৎসক ইতিকে মৃত ঘোষণা করেন। এ খবর শুনেই স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন ইতির বাবাকে ফোন দিয়ে লাশ হাসপাতালে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

ইতির বাবা শুকুর আলী জানান, খবর পেয়ে হাসপাতালে এসে দেখেন তার মেয়ের লাশ পড়ে আছে। ইতির স্বামী ও তার পরিবারের কেউ সেখানে নেই।

কান্দাপাড়া মহল্লার জামাত আলীর ছেলে রাজুর সাথে এক বছর আগে ৬০ হাজার টাকা যৌতুকে পোতাজিয়া গ্রামের শুকুর আলীর মেয়ে ইতি খাতুনের বিয়ে হয়। শুকুর আলী আরও জানান, বিয়ের সময় যৌতুকের ১০ হাজার টাকা বাকি ছিলো। ওই টাকার দাবিতে ইতিকে প্রায়ই নির্যাতন করত স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন। এর আগেও কয়েকবার ওরা ইতিকে হত্যার চেষ্টা করেছে। কিন্তু ইতি সব নির্যাতন সহ্য করতো।

পোতাজিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রোকসানা হ্যাপী বলেন, হাসপাতালে আনার ঘণ্টাখানেক আগে ইতির মৃত্যু হয়েছে। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

শাহজাদপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফাহমিদা হক শেলী ও ওসি (তদন্ত) রাকিবুল হুদা খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে লাশ থানায় নিয়ে আসেন। ওসি (তদন্ত) রাকিবুল হুদা বলেন, ইতির পরিবারের অভিযোগ পেলেই আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।