অবশেষে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর উদ্যোগ


308 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অবশেষে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর উদ্যোগ
মার্চ ২৮, ২০১৬ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
জ্বালানি তেলের দাম কমানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এরমধ্যে বিদ্যুৎকেন্দ্র ও শিল্প-কারখানায় ব্যবহৃত ফার্নেস তেলের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যেই পরিপত্র জারি করা হবে। অন্যান্য জ্বালানি তেলের দাম কবে থেকে কতটা কমবে, সে বিষয়ে আগামী মাসে সিদ্ধান্ত হতে পারে।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ সাংবাদিকদের সোমবার বলেন, ফার্নেস তেলের দাম লিটারপ্রতি ১৫/১৬ টাকা পর্যন্ত কমতে পারে। এ বিষয়ে কয়েক দিনের মধ্যেই পরিপত্র জারি করা হবে। অন্যান্য জ্বালানি তেলের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার সব ধরনের জ্বালানি তেলের দাম পুনর্র্নিধারণের উদ্যোগ নিয়েছে। এসব তেলের দাম কতটা কমানো হবে এবং তা কবে থেকে কার্যকর হবে, সে বিষয়ে পর্যালোচনা চলছে। বিষয়টি চূড়ান্ত হতে সর্বোচ্চ মাস খানেক সময় লাগতে পারে বলে তিনি জানান।

জ্বালানি তেলের দাম ত্রক্রমাগত কমছে। পাশ্ববর্তী দেশে ভারত, পাকিস্তানসহ অন্যান্য দেশেও দাম কমানো হয়েছে। বিশ্ববাজারে তেলের দাম গত ১২ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে এসে ঠেকেছে। দুই বছর আগে ব্যারেল প্রতি দাম ছিল ১২২ ডলার। প্রায় দেড় বছর বিপিসি জ্বালানি তেল বিক্রি করে ক্রমাগত লাভ করে আসছে। সর্বশেষ ২০১৩ সালের জানুয়ারি মাসে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছিল। সে সময় বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম ছিল ব্যারেল প্রতি ৯৭ ডলার। আর এখন ৩০ ডলার। বিপিসি সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে প্রতি লিটার অকটেনে বিপিসির লাভ হচ্ছে ৪০ টাকা। কেরোসিন, ডিজেল ও ফার্নেল অয়েলে লাভ হচ্ছে লিটার প্রতি ১৫ থেকে ২৫ টাকা।