অবাধে চলছে পাখি শিকার !


314 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অবাধে চলছে পাখি শিকার !
নভেম্বর ১৬, ২০১৫ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি (খুলনা) :
খুলনার দক্ষিণে অবাধে চলছে অতিথি পাখি শিকার। অতি লাভের আশায় একটি পাখি শিকারী চক্র বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তারা নির্বিঘেœ বিল, মাঠ ঘের এলাকা থেকে অতিথি পাখি শিকার করে চলেছে। এসব পাখি কখনো প্রকাশ্যে আবার কখনো গোপনে বিক্রি হচ্ছে এলাকার বিভিন্ন হাট-বাজারে। এঅবস্থা চলতে থাকলেও আইনের তেমন প্রয়োগ না থাকায় চোরা শিকারীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

তথ্যানুসন্ধাণে জানাযায়, প্রতি শীত মৌসুমে এ অঞ্চলের বিলগুলোতে হাজার হাজার অতিথি পাখি এসে আশ্রায় নেয়। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে কতিপয় অর্থলোভী শিকারীরা ফাঁদ পেতে পাখি শিকার করে তা বাজারে বিক্রি করে থাকে। বর্তমানে পাইকগাছা, তালা, দাকোপ ডুমুরিয়া সহ কয়েকটি বিল এলাকায় এখন পুরোদমে অতিথি পাখি নিধন চলছে। খাদ্যের সন্ধান ও আশ্রায়ের জন্য আসা অতিথি পাখি শিকারীদের হাতে ধরা পড়ার পর এক শেণীর ব্যবসায়ী কিনে নিয়ে এলাকার বাইরে চড়া মূল্যে বিক্রি করে থাকে। বৃহত্তর এ এলাকায় পাখি নিধন ও কেনাবেচার সাথে শতশত লোক  জড়িত আছে বলে জানা যায়। পাখি নিধন আইনত দন্ডনীয় হলেও কতিপয় অর্থলোভীরা আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে নিধন যজ্ঞে মেতে আছে।

পাখি নিধনের শাস্তির কথা জানতে চাইলে এ্যাডঃ দিপংকর সাহা বলেন, “পাখি জাতীয় সম্পদ, তা রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব সকলের। পাখি নিধন অইনত দন্ডনীয় অপরাধ, এ অপরাধে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে হবে”।
একটা সময় খুলনার দক্ষিণের বৃহত্তর বিল এলাকা ছিল অতিথি পাখির অভয়রণ্য। কিন্তু চোরা শিকারীদের অত্যাচারে দেশের জাতীয়  সম্পদ পাখিকূলের জীবন আজ হুমকির মুখে।