অবৈধভাবে কেউ ভারতে যাবেন না : সাতক্ষীরার ভোমরায় বিজিবি সেক্টর কমান্ডার


473 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অবৈধভাবে কেউ ভারতে যাবেন না : সাতক্ষীরার ভোমরায় বিজিবি সেক্টর কমান্ডার
আগস্ট ৬, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান ॥
অবৈধভাবে ভারতে যাবার ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবির খুলনা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল খলিলুর রহমান বলেন ‘ গরু আনতে গিয়ে কোনো বাংলাদেশির জীবনহানি ঘটুক তা আমরা চাইনা ।  এমনকি কেউ সে দেশে অনুপ্রবেশের দায়ে আটক হলেও তা আমাদের  জন্য সম্মানজনক নয় ’ ।
তিনি আরও বলেন পাসপোর্ট ছাড়া কেউ ভারতে গেলে বিজিবি যেমন তাকে আইনের আওতায় আনবে তেমনি বিএসএফও তাকে ছাড় দেবেনা ।  এ ধরনের অপরাধ  থেকে সরে থাকার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন ‘বাংলাদেশে কৃষি , শ্রম বিনিয়োগ ও ক্ষুদ্র ব্যবসার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে । চোরাচালানকে ঘৃনাভরে প্রত্যাখ্যান করে ও এই সুযোগকে ব্যবহার করে সীমান্তের সাধারন নাগরিকরা নতুন জীবন গড়ে তুলতে পারেন ’।
বৃহস্পতিবার বিকালে সাতক্ষীরার ভোমরা বিজিবি কোম্পানি সদর দফতরে জনপ্রতিনিধি , ব্যবসায়ী ও স্থানীয় নাগরিকদের সাথে এক মত বিনিময় সভায় বিজিবি  কমান্ডার এসব কথা বলেন ।
ভারত সরকার বাংলাদেশ গরু আসা নিষিদ্ধ করেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন কোনো ভারতীয রাখাল যদি সীমান্তের জিরো পয়েন্টে ভারতীয় পশু নিয়ে আসে  তবে তা গ্রহন করলে  বিজিবি  বাধা দেবেনা । কিন্তু কেউ যদি গরু আনার নামে সাথে ভারতীয় ফেনসিডিল বা অন্য কোনো চোরাচালান পন্য নিয়ে আসার  চেষ্টা করে তবে তা হবে বেআইনি এবং বিজিবি তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেবে । এ প্রসঙ্গে তিনি জোর দিয়ে বলেন ‘ গরু আনতে অবৈধভাবে কোনো বংলাদেশি ভারতে গেলে ভারতীয় বাহিনী তাদের মতো  করে ব্যবস্থা নিলে বাংলাদেশের কিছুই বলার থাকবে না ’। তিনি গরুর খাটাল মালিকদের উদ্দেশে বলেন তারা যেন ভারত থেকে গরু আনার ব্যাপারে কাউকে টাকার প্রলোভন না দেখান ।  এমন প্রমান মিললে তিনিও আইনের আওতায় আসবেন , যোগ করেন তিনি ।
বিজিবি কমান্ডার বলেন অবৈধভাবে ভারত থেকে গরু আনার সময় অনেকেই বিএসএফ ও ভারতীয় রাখালদের  সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় । হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে ।  এতে অনেকই মারা যান । বাংলাদেশ এমনটি চায়না বলে মন্তব্য করেন তিনি ।
মত বিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিজিবির  ৩৮ ব্যাটেলিয়ন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর নজির আহমেদ বকসি ।  এ সময়  অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যাপক আবু আহমেদ , বিজিবির ভোমরা , গাজিপুর ও পদ্মশাকরা বিওপির অধিনায়ক যথাক্রমে সুবেদার গোলাম সরোয়ার , নায়েক সুবেদার আবদুর রাজ্জাক  ও নায়েক সুবেদার ফিরোজ আহমেদ , ইউপি সদস্য জাকির হোসেন  ও মো. সাজ্জাদ হোসেন , গরু খাটাল মালিক লিয়াকত হোসেন , নীলকান্ত মনি , মো. সামসুজ্জামান , মো. জাকির হোসেন , আবদুল গনি ছাড়াও গরু রাখাল ও ব্যবসায়ীরা।