অলিম্পিকের জানা-অজানা কিছু তথ্য


370 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অলিম্পিকের জানা-অজানা কিছু তথ্য
আগস্ট ৮, ২০১৬ খেলা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক :
৩১তম অলিম্পিক গেমস শুরু হয়ে গেছে রিও ডি জেমেইরোতে। মোট ১০,৫০০ জন খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করবেন ২০১৬র অলিম্পিকে। ২০১৪ এর ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপের পরে, ব্রাজিল আরও একবার বিশ্ববাসীর নজরে। ১৮৯৬ সালে শুরু হওয়া অলিম্পিক গেমসের কিছু জানা-অজানা তথ্য নিচে তুলে ধরা হল:

১৯১২ সালে স্টকহোমে অনুষ্ঠিত গেমসে শুরু হওয়া ম্যারাথনে অংশ নেন জাপানের দৌড়বীর শিসো। শিসো-সহ মাত্র দু’জন অ্যাথলিট জাপান থেকে সে বছর অংশ নিয়েছিলেন। জাপান থেকে স্টকহোম পৌঁছতে শিসোদের লেগেছিল ২০ দিন। ক্লান্তির জেরে ম্যারাথনে অসুস্থ হয়ে জ্ঞান হারান শিসো।

শিসো কানাকুড়ি— ৭৫ বছর বয়সে তাকে অমন্ত্রণ জানায় সুইডেনের জাতীয় অলিম্পিক কমিটি। ৩২ মিনিট ২০.৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে অলিম্পিকে ইতিহাস গড়ে ম্যারাথন শেষ করেন শিসো।

দিমিত্রিয়স লন্দ্রা— অলিম্পিক ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ মেডেলজয়ী। মাত্র ১০ বছর ২১৮ দিন বয়সে, ১৮৯৬ সালের গ্রিস অলিম্পিকে, প্যারালেল বার ইভেন্টে তিনি ব্রোঞ্জ মেডেল অর্জন করেন।

অস্কার সোয়ান— ১৯০৮, ১৯১২ ও ১৯২০ এই তিনবার অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করেন সুইডেন থেকে। ১৯২০ সালের অন্তরেপ গেমসের সময় তার বয়স ছিল ৭২ বছর ২৮১ দিন। শুটিং ইভেন্ট ‘রানিং ডিয়ার’-এ, তিন বছরে অস্কার ৩টি গোল্ড, ১টি রূপো ও ২টি ব্রোঞ্জ মেডেল অর্জন করেন।

অলিম্পিক ফ্ল্যাগ— সাদার উপর পাঁচটি রঙের রিং। অলিম্পিকের এই পতাকার স্রষ্টা ছিলেন বেরন পিয়ের দি কুবেরতাঁ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জাতীয় পতাকার রঙের স্পর্শ রয়েছে এই পাঁচ রঙে। ১৯১৪ সালে, অন্তরেপ অলিম্পিকে, প্রথমবার এই পতাকা উত্তলোন করা হয়।

অলিম্পিকের সোনার মেডেল— ১৯১২ সালে শেষবার সোনার মেডেল দেওয়া হয়েছিল বিজয়ীদের। তার পর থেকে, প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানাধিকারীদের রৌপ্য পদকই দেওয়া হয়। ৬ গ্রাম সোনা দিয়ে প্লেটেং করা থাকে সোনার মেডেলগুলি।

মার্কিন প্রতিনিধি— এ যাবৎ ৯৭৬ স্বর্ণ পদক, ৭৫৭ রৌপ্য পদক ও ৬৬৬ ব্রোঞ্জ পদক পেয়ে মার্কিন দেশ সর্বোচ্চ তালিকায় রয়েছে।

চীনের অংশগ্রহণ— ১৯৩২ সাল থেকে অংশগ্রহণ করলেও চীন তার প্রথম পদক জেতে ১৯৮৪ সালে। ৫০ মিটার পিস্তল ইভেন্টে, জু হেয়ফেং সোনা জেতেন।

১৯০০ সালের প্যারিস অলিম্পিকে, প্রথম ও শেষবার, একটি ইভেন্ট ছিল পায়রা মারার। এমনই দুটি ইভেন্টে বেলজিয়াম ও অস্ট্রেলিয়া সোনা জেতে।

লিয়েন্ডার পেজ— রিও অলিম্পিক্স নিয়ে, এ যাবৎ সপ্তমবার এই মহারণে তাকে দেখা যাবে। ১৯৯২ সাল থেকে, লিয়েন্ডার পেজ, প্রতিবারই ডাবসল খেলেছেন অলিম্পিকে। ১৯৯৬ সালের আটলান্টা অলিম্পিকে তিনি ব্রোঞ্জ জেতেন।