অসময়ে বাঁধাকপি চাষে কৃষক মিজানুরের লাখ টাকা আয়


167 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
অসময়ে বাঁধাকপি চাষে কৃষক মিজানুরের লাখ টাকা আয়
জুন ২৯, ২০২১ কৃষি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

॥ রাহাত রাজা ॥

রবি মৌসুমের একটি প্রধান সবজি বাঁধাকপি । দেশের প্রায় সব অঞ্চলেই বাঁধাকপির চাষ হয়। বাঁধাকপি একটি অত্যন্ত পুষ্টিকর সবজি। হার্টের অসুখ, ডায়বেটিস ও ক্যানসার প্রতিরোধে বাধা কপি সাহায্য করে।
শীতকালীন সবজি হলেও চাহিদা ও কৃষিতে আধুনিকতার ছোয়াই সবজিটি এখন কালের গতি ছাড়িয়ে।
গ্রীর্ষকালেও বাধাকপির চাষ করছে কৃষক। বাধা কপি চাষ করেও লাখ টাকা আয় করা সম্ভব তার প্রমান দিলেন যশোরের কেশবপুর উপজেলার রেজাকাঠি গ্রামের কৃষক মিজানুর রহমান।
বেশি লাভের আসায় তিনি প্রতি বছর এই সময়ে বাধাকপির চাষ করেন। চাষী মিজানুর রহমান জানান অসময়ে মানুষ বাধা পাওয়াই দাম বেশ ভালো পাচ্ছেন তিনি।
বীজতলা তৈরির পর, চারা রোপনের ৬৫ থেকে ৭০ দিন থেকে বাধা কপি বিক্রয় উপযুক্ত হয়।
কৃষক মিজানুর রহমান বলেন এক বিঘা জমিতে বাধাকপি চাষকরতে খরচ হয় ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা, যা জমি চাষাবাদ, জন খরচ, বীজতলা তৈরি সহ বিভিন্ন কাজে খরচ হয়। তবে সব খরচ বাদে প্রায় ১ লক্ষ্য টাকার বেশি বাধা কপি বিক্রয় করা সম্ভব হয়। খেত থেকে কেজি প্রতি ৪০ টাকা মূল্যে পাইকারি ও খুচরা বিক্রয় হয়ে যায় বাধাকপি । কৃষক মিজানুর রহমান বলেন বছরে একই জমিতে ৩ বার ফষল উৎপাদন করা সম্ভব।
মিজানুর রহমানের বাধা কপি চাষের সাফল্য দেখে এলাকার অনেক তরুন উদ্যোক্তারা ঝুকছে বাধা কপি চাষে।
বাড়ির অঙ্গিনায় বা জমি লীজ নিয়ে যদি সঠিক ভাবে বাধা কপি চাষ করতে পারে তাহলে মিজানুর রহমানের মত দেখা মিলবে সাফল্যের। প্রয়োজন সঠিক উদ্যোগ আর কঠোর পরিশ্রম।

#