আগামী বর্ষার আগেই শ্যামনগরে টেকসই বেঁড়িবাধ : পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী


772 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আগামী বর্ষার আগেই শ্যামনগরে টেকসই বেঁড়িবাধ : পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী
জানুয়ারি ৩, ২০২০ সাতক্ষীরা সদর সুন্দরবন
Print Friendly, PDF & Email

*উপকুলীয় বেঁড়ীবাধ নির্মানে ১২ হাজার ৯ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহন

আসাদুজ্জামান :
সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপকূলীয় এলাকার ঝুঁকিপূর্ণ বেঁড়িবাধ পরিদর্শন করেছেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক।শুক্রবার প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যেও তিনি শ্যামনগরের উপকূলীয় বুড়িগোয়ালিনী ও গাবুরা ইউনিয়নের জরাজীর্ণ ও ভাঙন কবলিত বেঁড়িবাধ পরিদর্শন করেন।

ঝুঁিকপূর্ণ বেড়িবাধ পরিদর্শন শেষে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেন, এখানে সাতটি পোল্ডার রয়েছে। এর মধ্যে তিনটি পোল্ডার আমরা পরিদর্শন করেছি। বাধগুলো অত্যান্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান সরকার সুন্দরবন উপকুলীয় সাতক্ষীরার শ্যামনগর, আশাশুনি, খুলনার কয়রা, পাইকগাছা ও দাকোপ উপজেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৭ টি পোল্ডারের আওতাধীন টেকসই বেঁড়ী বাধ নির্মানে ১২ হাজার ৯ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। চলমান এ সব প্রকল্পের কাজ আগামী বর্ষার মৌসুমের আগেই দ্রুত শেষ করা হবে। পরে তিনি খুলনার কয়রা উপজেলার ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাধ পরিদর্শন করেন।

এ সময় তার সাথে ছিলেন, পাইকগাছা-কয়রা আসনের সংসদ সদস্য আক্তারুজ্জামান, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক মাহফুজুর রহমান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক হাবিবুর রহমান, শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান এস.এম আতাউল হক দোলন, গাবুরা ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদুল আলম, বুড়িগোয়ালিনা ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ মন্ডল প্রমুখ।