আচরণবিধি লঙ্ঘন : সাতক্ষীরার কাউন্সিলর প্রার্থী মিন্টুকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা


298 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আচরণবিধি লঙ্ঘন : সাতক্ষীরার কাউন্সিলর প্রার্থী মিন্টুকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা
ডিসেম্বর ২১, ২০১৫ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

কাজী জাহিদ আহম্মেদ :
সাতক্ষীরা শহরতলীর মোজাফফর গার্ডেনে বনভোজনে অংশ নিয়ে ভোটারদের খাবার ও পানীয় দিয়ে প্রভাবিত করার অভিযোগে সাতক্ষীরা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ওসমান গণি মিণ্টুকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
সোমবার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে সাতক্ষীরা শহরের মুনজিতপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে বিচারক সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনিরা পারভিন এ জরিমানা করেন।
মনিরা পারভিন জানান, গত ১৭ ডিসেম্বর কাউন্সিলর প্রার্থী ওসমান গণি মিন্টু একটি সমবায় সমিতি আয়োজিত বনভোজনে অংশ নেন। এ সময় তিনি তার এলাকার ভোটারদের মধ্যে খাদ্য ও পানীয় বিতরণ করেন। এর ভিডিও চিত্রসহসহ অভিযোগ করেন একই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মনোয়র হোসেন অনু, আইয়ুব আলী ও শেখ শরিফুল ইসলাম। এরই প্রেক্ষিতে তিনি গতকাল বিকেল পৌনে ৫টার দিকে মুনজিতপুরে  ঘটনার তদন্তে যেয়ে অভিযোগের সত্যতা পান। তিনি ওসমান গণির বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরনবিধি ভঙ্গের অভিযোগে ১৭(খ) ধারায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।
তিনি আরো জানান, গত শনিবার বিকেলে শহরের খাদ্য গুদাম মোড়ে ভোটারদের মধ্যে গেঞ্জি বিতরনের অভিযোগে ভারপ্রাপ্ত রিটার্ণিং অফিসার হিসেবে তিনি ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ওসমান গণি মিণ্টুর কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। তাকে শেষ বারের মত সতর্ক করার কথা জানিয়ে মনিরা পারভিন এ প্রতিবেদককে বলেন, আগামিতে এ ধরণের কোন অভিযোগ পেলে তার প্রার্থীতা বাতিলের জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন জানানো হবে।
তবে ওসমান গণি মিণ্টু বলেন, পিকনিকে গেলে আচরণ বিধি ভঙ্গ হয় এটা তার জানা ছিল না। তাছাড়া তিনি পিকনিকে গেলেও খাদ্য ও পানীয় দিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করেননি। তাকে বিচারের নামে অবিচার করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,ওসমান গনি মিন্টু নির্বাচনী প্রচারনা চালানোর সময় ভ্রাম্যমান আদালত সেখানে যান। প্রথমে তাকে নির্বাচনী আচরনবিধি লঙ্ঘনের দায়ে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করার ঘোষনা দেন। মিন্টু পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তাকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা দিতে বলা হয়। তাতেও মিন্টু অপারগতা প্রকাশ করায় সর্বশেষ তাকে দশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।