আপনার সাহায্যয় স্বাভাবিক মানুষের মত জীবনযাপন করতে পারে দেবশ্রী


358 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আপনার সাহায্যয় স্বাভাবিক মানুষের মত জীবনযাপন করতে পারে দেবশ্রী
জানুয়ারি ২২, ২০১৭ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

নাজমুল শাহাদাৎ (জাকির) ও শাহিদুর রহমান ::
প্রত্যেক পিতামাতার স্বপ্ন থাকে তার সন্তানকে নিয়ে। দেবশ্রীর পিতামাতা ও স্বপ্ন দেখতো তাদের সন্তান সমাজের একজন হবে। কিন্তু দরিদ্র পিতার স্বপ্ন অপূরণ হয়ে গেল। কেননা  জন্ম থেকেই অদ্ভুত রোগে আক্রান্ত হয়ে মুখের ভিতর থেকে জিব্বা বের হয়ে ঝুলে রয়েছে দেবশ্রীর। চিকিৎসা পেলে স্বাভাবিকের মত জীবনযাপন করতে পারবে দেবশ্রী। কিন্তু দারিদ্র পিতার পক্ষে চিকিৎসার টাকা জোগার করা অসম্ভব। এজন্য দেবশ্রীর চিকিৎসার জন্য হৃদয়বান মানুষের সহযোগিতা প্রয়োজন। এব্যাপারে  দেবশ্রীর পিতার সাথে যোগাযোগ করা হলে দেবশ্রীর কৃষক বাবা সমীরণ রায় বলেন, ‘ আমার সন্তানকে সুস্থ করার জন্যে এ পর্যন্ত প্রায় ৪ লাখ টাকা খরচ করেছি কিন্তু দ্রেবশ্রীকে সুস্থ করা সম্ভব হয়নি। সাতক্ষীরা, যশোর ও খুলনার নামি দামি সব ডাক্তার দেখানো হলেও কোন সুফল মেলেনি। ডাক্তারদের পরামর্শ নিয়ে কলকাতা নিয়ে চিকিৎসা করিয়েও কোন লাভ হয়নি। এখন আমার ছেলের বয়স মাত্র ৯ বছর। অদ্ভুত রোগে আক্রান্ত হয়ে মুখের ভিতর থেকে জিব্বা বের হওয়া অবস্থায় সে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে। সে এখন  তালা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের পার মাদরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী।’
এদিকে, টাকার অভাবে চিকিৎসা হয় না দেবশ্রীর শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর  হেড কোয়ার্টারের সিনিয়র সহকারি সচিব (ম্যাজিষ্ট্রেট) আকতার হোসেন দেবশ্রীর সহায়তা করবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, দেবশ্রীর চিকিৎসা সেবার জন্য সব ধরণের সহযোগিতা করা হবে। ঢাকায় চিকিৎসা সেবা সম্ভব না হলেও সিদ্ধান্ত নিয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এদিকে, শনিবার রাত ৮টার গাড়িতে দেবশ্রীকে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়েছে ঢাকায়। ভর্তি করা হবে ঢাকার পিজি হাসপাতালে। দেবশ্রীর সাথে ঢাকায় গিয়েছেন সাংবাদিক আকরামুল ইসলাম, দেবশ্রীর বাবা সমীরণ রায়, চাচা সৌমিত্র রায়, দাদী কৌশল্যা রায়।
দেবাশ্রীর চিকিৎসার জন্যে কেউ সহযোগিতা করতে চাইলে দেবশ্রীর বাবা সমীরণ রায়ের (০১৭১৪৫১৫০৪৫) সাথে কথা বলতে পারেন। তাছাড়া সহযোগিতা করতে পারেন সাংবাদিক আকরামুল ইসলামের ০১৭১৬০৬০৮৩৬ পারসোনাল বিকাশ নাম্বারেও। কেননা আপনার একটি টাকাই সুস্থ হয়ে যেতে পারে দেবশ্রী।