আমাদের প্রতিটি সন্তানকে সু-সন্তান করে গড়ে তুলতে হবে : সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক


472 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আমাদের প্রতিটি সন্তানকে সু-সন্তান করে গড়ে তুলতে হবে : সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক
অক্টোবর ১৯, ২০১৫ তালা বিনোদন
Print Friendly, PDF & Email

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা :
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান বলেছেন, সাতক্ষীরার মানুষ শান্তিপ্রিয়। গুটি কয়েক মানুষের কারণে সাতক্ষীরায় কিছুদিন পূর্বেও অশান্তি ছিল। কিন্তু এখন আর তা নেই। বর্তমানে শান্তিপূর্ন পরিবেশ বিরাজ করছে। এই পরিবেশ আমাদের ধরে রাখতে হবে। এজন্য সমাজে যারা খারাপ মানুষ রয়েছে তাদেরকে আশ্রয় না দিয়ে তাদের ভাল করার চেষ্টা করতে হবে। তিনি বলেন, যারা সন্ত্রাস করে তাদের সমাজের কেহ পছন্দ করে না। এমনকি নিজ পিতা-মাতাও না। এজন্য আমাদের প্রতিটি সন্তান যেন সু-সন্তান হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি বলেন, সাতক্ষীরায় ইতোমধ্যে ১ লক্ষ ২৩ হাজার আমের চারা রোপন করা হয়েছে। আগামী ৪/৫ বছরের মধ্যে এই গাছ থেকে যে আম উৎপাদন হবে তা’ স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানী করা হবে।

রোববার বিকালে তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়ন সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ ও টাক্সফোর্স কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান এসব কথা বলেন।

খলিলনগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন, তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাহবুবুর রহমান। ইউপি সদস্য আক্কাচ আলী শেখ এর পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে ইউনিয়ন সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ ও টাক্সফোর্স কমিটির সভাপতি সরদার ইমান আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা অমল কান্তি রায়, কোহিনুর বিশ্বাস, ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারন সম্পাদক মোড়ল সিরাজুল ইসলাম, ইুইপ সদস্য লিয়াকত আলী, যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান গোলদার, জাহিদ হোসেন, মনিরুল ইসলাম প্রমুখ বক্তৃতা করেন। উক্ত সভায়, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. নাজমুল আহসান এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে শালতা নদী খনন কার্য্যক্রম প্রক্রিয়া শুরু করার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ প্রদান করেন। সভা শেষে জেরা প্রশাসক ইউনিয়নের বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মাঝে ১ হাজার ১৭০টি আমের চারা বিতরন করেন।

এছাড়া খলিলনগর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশনের ক্ষুদ্র ঋন কার্য্যক্রম পরিদর্শন করেন। এসময় ঋন গ্রহিতা সুফলভোগীরা ছাড়াও পল্লী দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন তালা শাখার ব্যবস্থাপক মো. শাহাজাহান, কর্মকর্তা সেন অচিন্ত্য, জসিম, নবব্রত মন্ডল, মফিদুল হক ও হাফিজা খাতুন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। শেষে তিনি খলিলনগর ইউনিয়নের লোকনাথ মন্দিরসহ কয়েকটি স্থাপনা পরিদর্শন করেন।