আ’লীগের রাজনৈতিক দর্শণ সকল ধর্মকে সমান চোখে দেখা : এমপি রুহুল হক


460 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আ’লীগের রাজনৈতিক দর্শণ সকল ধর্মকে সমান চোখে দেখা : এমপি রুহুল হক
অক্টোবর ১৬, ২০১৮ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক এমপি বলেন, আওয়ামীলীগের রাজনৈতিক দর্শণ সকল ধর্মকে সমান চোখে দেখা। বঙ্গবন্ধুর সেই আদর্শ নিয়ে বাংলাদেশের জন্ম হয়েছে। এবং সেই আদর্শ নিয়ে দেশ এগিয়ে চলেছে। মাঝে কিছু ব্যাত্যয় ঘটিয়েছিল ভিন্ন মতাবলম্বী, স্বাধীনতা বিরোধী ও জামাত-শিবির চক্র। আজকে বাংলাদেশ বিশ্বে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে মডেল হয়ে আছে। বিশ্বের অনেক দেশের চেয়ে বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে এগিয়ে আছে। এমনকি পাশ্ববর্তী দেশ ভারত খেকেও বাংলাদেশ এগিয়ে আছে। আমরা ধর্মীয় সম্প্রীতি অক্ষুন্ন রাখতে চাই। তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) কে নির্দেশ দিয়ে বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বী মা ও মেয়েরা পূজার সময় রাতদিন চলাচল করবে, তারা যেন কোনরুপ সমস্যায় না পড়ে সেদিকে সতর্ক ব্যবস্থা রাখবেন। যদি কেউ সমস্যা সৃষ্টি করে তাদেরকে কঠোর হস্তে দমন করবেন। যদিও তারা আমার নিজের বা দলীয় হোক কোন ছাড় দিবেননা। জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আমাদের রাজনৈতিক শত্রু, অসাম্প্রদায়িক শক্তি সমস্যা সৃষ্টির চেষ্টা করছে। এজন্য তিনি নেতাকর্মী ও প্রশাসনকে সতর্কতার সাথে, চোখ খুলে কাজ করার আহবান জানান। পূজা উদযাপন পরিষদ নেতৃবৃন্দকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, উপজেলায় ১০৬টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। অনেক মন্ডপে আমার যাওয়া সম্ভব হবেনা, তবে সকলের প্রতি আমার শুভেচ্ছা রইল। মঙ্গলবার বেলা ১১.৩০ টায় আশাশুনি সদর দুর্গা মন্দিরে অর্ঘ্য প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণ দিতে গিয়ে সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক উপরোক্ত কথা বলেন।
শারদীয় দুর্গোসব-২০১৮ উপলক্ষে সরকারি ও এমপি অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হকের নিজস্ব তহবিল হতে অর্ঘ্য প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি নীলকণ্ঠ সোম। সাংবাদিক অসীম বরণ চক্রবর্তী ও পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রনজিৎ কুমার বৈদ্য’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাফফারা তাসনীন, পুলিশ পরিদর্শক (ওসি) বিপ্লব কুমার নাথ। অনুষ্ঠানে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অরুন কুমার ব্যানার্জী, এমপি প্রতিনিধি শম্ভুজিৎ মন্ডল, ইউপি চেয়ারম্যান দিপংকর কুমার সরকার, আলহাজ¦ শাহ নেওয়াজ ডালিম, আঃ আলিম মোল্যা, শ্রমিকলীগ সভাপতি ঢালী মোঃ সামছুল আলম, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান বিপুল, অধ্যাপক মাহবুবুল হক ডাবলু, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি এস এম সাহেব আলি, সদর ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদ আহবায়ক রতন কুমার অধিকারীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে ১০৬ টি পূজা মন্ডপের সভাপতি ও সেক্রেটারী হাতে প্রত্যেক মন্ডপের জন্য সরকার প্রদত্ব ১০ হাজার ৫ শত টাকা ও এমপি মহোদয়ের ব্যক্তিগত তহবিল হতে ১০০০ টাকা করে এক লক্ষ ৬ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।
##