আশাশুনিতে অনিয়মের প্রতিকারের দাবীতে সাংবাদ সম্মেলন


98 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে অনিয়মের প্রতিকারের দাবীতে সাংবাদ সম্মেলন
নভেম্বর ২০, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

আশাশুনি উপজেলার বাইনতলা আরসি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দাতা শ্রেণির ভোটার করতে অনিয়মের প্রতিকারের দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন করা হয়েছে। বুধবার সকালে আশাশুনি প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
উপজেলার বাইনতলা গ্রামের বাবু রাম সরকারের পুত্র দ্বীনেশ চন্দ্র সরকার লিখিত বক্তব্যে জানান, বাইনতলা আরসি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে দ্বাতা শ্রেণির ভোটার তালিকা করার জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক খগেন্দ্র নাথ মন্ডল। বিজ্ঞপ্তি মোতাবেক তিনি (দ্বীনেশ) ১৬ নভেম্বর বিকাল ৩.৪০ টায় নগদ ২০ হাজার টাকা জমা প্রদান করেন। একই দিন আরও ১১ জন ১১টি ব্যাংক চেক প্রদান করে দ্বাতা ভোটার হওয়ার আবেদন করেন। কিন্তু দেখাযায় তিনি (দ্বীনেশ) সহ মোট ১২ জনের মধ্যে ১০ জনের প্রদত্ব চেক সরকারি বিধি মোতাবেক হয়নি। তার নগদ ২০ হাজার টাকা এবং বিপ্লব কান্তি মন্ডলের প্রদত্ব চেক বিধি মোতাবেক হয়েছে। বাকী ১০ জন তঞ্চকি ও অসৎ উদ্দেশ্যে বিধি বহির্ভূত ভাবে অন্যের চেক বইয়ের পাতা ব্যবহার করে জমা দিয়েছেন। যাদের মধ্যে রতেœশ^র মন্ডল পবিত্র মন্ডলের চেক, রাজীব কুমার মন্ডল সুজিত কুমার গাইনের, হাসান মোল্যা খালেক মোল্যার, হোসেন মোল্যা খালেক মোল্লার, ইউ কে মোল্যা খালেক মোল্যার, গুরু দাশ মন্ডল খালেক মোল্লার, সুজিত কুমার গাইন খালেক মোল্লার, গীতা রানী মন্ডল বিপ্লব কান্তির, লিপিকা বালা বিপ্লব কান্তির ও অরবিন্দু মন্ডল বিপ্লব কান্তির চেক বইয়ের পাতা নিয়ে বিধি বহির্ভূত ভাবে জমা দিয়েছেন। এব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ এনে প্রতিকার প্রার্থনা করা হয়েছে। এব্যাপারে তিনি অবৈধ পথে দ্বাতা সদস্যদের নিয়ে পবিত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে কলুষিত করার পথ রুদ্ধ ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

#