আশাশুনিতে আসামী ছিনিয়ে নিতে পুলিশের ওপর হামলা : গ্রেফতার-৪


270 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে আসামী ছিনিয়ে নিতে পুলিশের ওপর হামলা : গ্রেফতার-৪
এপ্রিল ৭, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

গোপল কুমার, আশাশুনি ব্যুরো :
আশাশুনিতে আসামী ছিনিয়ে নিতে পুলিশের উপর হামলায় ২ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নের মধ্যম একসরা গ্রামে।
পুলিশ সূত্রে জানাযায়, এসআই গৌতম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মধ্যম একসরা গ্রামের ওয়ারেন্টের ভুক্ত পলাতক আসামী বাচ্চুকে তার বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীকে নিয়ে পুলিশ থানার উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার পথে আনুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি লিটনের সমর্থক এলাকার ত্রাস সন্ত্রাসী একাধিক মামলার আসামী ক্যাডার শওকত এর নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসী পুলিশের গতিরোধ করে আটককৃত ওয়ারেন্টের আসামী বাচ্চুকে ছেড়ে দিতে বল প্রয়োগ করতে থাকে। সুযোগ বুঝে আসামী বাচ্চুকে ছিনিয়ে নিতে তারা পুলিশের উপর হামলা করে। ওই সময় সন্ত্রাসী শওকত বাহিনীর হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে আঘাত করে ২ পুলিশ কনস্টেবল ফারুক হোসেন ও সাজেদুর রহমান আহত হয়। পুলিশের পাল্টা জবাবে সন্ত্রাসী পালিয়ে যায়। তবে আসামী ছিনিয়ে নিতে পারেনি। আহত ২ পুলিশ কনস্টেবলকে রাতেই আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা পুলিশের উপর হামলা মারপীটে ঘটনায় ১২ জনের নাম উল্লেখ্য করে অজ্ঞাতনাতা ৪০/৫০ জনকে আসামী করে ১১(৪)১৬নং একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের উপর হামলাকারী ও মামলার আসামীদের গ্রেফতার করতে বৃহস্পতিবার সকালে আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান মুন্সির নেতৃত্বে এসআই আব্দুর রাজ্জাক, রশিদুজ্জামান, প্রদীপ, গৌতম, মহসীন সহ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স আনুলিয়া ইউনিয়নে ঝটিকা অভিযান চালায়। অভিযানে মধ্যম একসরা গ্রামের মতলেব সানার পুত্র লিয়াকত সানা (৫০) এলাহী শিকারীর পুত্র নজরুল ইসলাম (৩০) ও মাসুদ মোড়লের পুত্র হাফিজুল ইসলাম মোড়ল (২৪) আসামী অবেদ আলী শিকারীর পুত্র বাচ্চু শিকারী (৩০) কে গ্রেফতার করে পুলিশ। এলাকায় পুলিশের ঝটিকা অভিযান অব্যাহত থাকায় উক্ত গ্রাম সহ কয়েকটি গ্রাম বর্তমানে গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষ শূণ্য হয়ে পড়েছে। ##