আশাশুনিতে জমে উঠছে কোরবানির পশুর হাট, স্বাস্থ্যবিধি মানছে না অনেকেই


179 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে জমে উঠছে কোরবানির পশুর হাট, স্বাস্থ্যবিধি মানছে না অনেকেই
জুলাই ১৬, ২০২১ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলায় প্রানকেন্দ্র বুধহাটায় জমে উঠছে কোরবানির পশুর হাট,
আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে আশাশুনি উপজেলায় জমতে শুরু করেছে কোরবানির পশুর হাট। শুক্রবার লকডাউন পরবর্তী সময়ের আশাশুনি উপজেলার প্রান কেন্দ্রে বসেছে বিশাল এ পশুর হাটটি।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, যথেষ্ট ক্রেতা-বিক্রেতার উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে উদাসীন বাজারে আসা লোকজন । কেউ কেউ মাস্ক পকেটে, কেউবা মাস্ক হাতে নিয়ে বাজারে ঘুরাঘুরি করতে দেখা গেছে।
সাতমাইল,আঠারমাইল,তালা,পাইকগাছা,বাঁকা,বড়দল,চাঁদখালি, ব্যাংদহা,গোবরদাড়ি সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন প্রজাতির ১ হাজারের অধিক গরু এসেছে শুক্রবার এ হাটটিতে। তবে দাম নিয়ে ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে সন্তুষ্টি দেখা যায়নি । হাটে মহিষের উপস্থিতি নেই বললেই চলে।

গরু কিনতে আসা ভালুকা চাঁদপুরের আঃ করিম বলেন, বাজারে গরুর দাম সন্তোষজনক। খুব বেশিও না আবার কমও না। আমি ৬০ হাজার টাকায় একটি গরু কিনেছি। সাড়ে ৩ মণের বেশি মাংশ হবে বলে আশা করছি ।
বিক্রেতা আবুল হোসেন বলেন, আমি ১টি গরু নিয়ে এসেছিলাম, ৯৫ হাজার টাকা বিক্রি করেছি আমার ২০ হাজার টাকা লাভ হয়েছে । বাজারে দাম কিছুটা কম মনে হচ্ছে।

হাটের ইজারাদার আব্দল খালেক বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাজার পরিচালনার চেষ্টা করছি, মানুষকে সচেতন করছি কিন্তু সচেতন হচ্ছে না। বাজারে গরু আমদানি ভাল। যতই ঈদের দিন ঘনিয়ে আসবে, ক্রেতারা সংখ্যা ততই বাড়বে বলে আশা করছেন বাজার কর্তৃপক্ষ।

#