আশাশুনিতে দূর্বলতার সুযোগে জমি রেকর্ড করিয়ে নেওয়ার অভিযোগ


144 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে দূর্বলতার সুযোগে জমি রেকর্ড করিয়ে নেওয়ার অভিযোগ
সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

॥ সুমন মূখার্জী ॥

বিশ্বাসভাজন কর্মচারী ও ধর্মাত্মীয় হওয়ায় দুর্বালতার সুযোগ কাজে লাগিয়ে বলাই কৃষ্ণ বন্দোপাধ্যায় নিজের নামে জমি রেকর্ড করিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এব্যাপারে বিজ্ঞ জেলা জজ ২য় আদালতে দেং ৮১/২০২০ রুজু করা হয়েছে।
আশাশুনি উপজেলার বেউলা গ্রামের মৃত বিষ্ণপদ মুখোপাধ্যায়ের পুত্র কার্ত্তিক চন্দ্র মুখোপাধ্যায় ও নিমাই কুমার মুখোপাধ্যায় বাদী হয়ে মৃত বলাই কৃষ্ণ বন্দোপাধ্যায়ের ওয়ারেশ সুকুমার বন্দোপাধ্যায়সহ ৪ জনকে বিবাদী করে দায়েরকৃত মামলায় জানাযায়, এসএ জরিপকালে বাদীপক্ষের পূর্বাধীকারী অমূল্য কৃষ্ণ হালদারের মৃত থাকায় যমুনা বালা হালদার এবং কালিদাসী মুখোপাধ্যায় গ্রাম্য মহিলা এবং বিষয় সম্পত্তি সম্পর্কে অজ্ঞ থাকায় বাদীদ্বয় নাবালক থাকায় নালিমী জমি এসএ রেকর্ড করানোর দায়িত্ব পালন করেন, তাদের বিশ^াসভাজন কর্মচারী ও ধর্মাত্মীয় বলাই কৃষ্ণ বন্দোঃ। তাদের দুর্বালতার সুযোগে তিনি নালিশী সম্পত্তির মধ্যে ৮৬৪ দাগের ০.৯৬ একরের মধ্যে ০.১৬ একর সম্পত্তি এসএ ৭০৭ নং খতিয়ানে এবং ৮৬০ দাগের ৫.৯৪ একর জমির মধ্যে ৫.২৮ এবর সম্পত্তি এসএ ৮৫৩ খতিয়ানে অমুল্য কুষ্ণ হালদারের নামে রেকর্ড করান। এবং ৮৬০ দাগের ৫.৯৪ মধ্যে ০.৩৩ একর, ৮৬৪ দাগের ০.৯৬ একরের মধ্যে ০.৮০ একর, ১৮০৮ দাগের ২.৬৭ একরের মধ্যে ১.৩৩ একর একুনে ২.৬৮ একর সম্পত্তি এসএ ৮৫৫ নং খতিয়ানে, এবং ১৮০৮ দাগের ২.৬৭ একরের মধ্যে ১.৩৪ একর সম্পত্তি এসএ ৩৪৯ নং খতিয়ানে নিজ নামে এবং ৮৬০ দাগের ৫.৯৪ একরের মধ্যে ০.৩৩ একর সম্পত্তি এসএ ৮৫৭ নং খতিয়ানে নিজ নামে এবং নিজ ভ্রাতা কানাইলাল বন্দোপাধ্যায়ের নামে রেকর্ড করিয়ে রাখেন বলে প্রকাশ পায়। নালিশী সম্পত্তি বাবদ এসএ ৩৪৯, ৮৫৫ ও ৮৫৭ নং খতিয়ানে লিখন সম্পূর্ণ ভ্রমাত্মক ও ভিত্তিহীন। তারা উক্ত সম্পত্তি তাদের অনুকুলে কোন রূপ সত্ত্ব স্বার্থ ও দখল সংশ্রবের উদ্ভব হয়নি ও আইনত হতেও পারেনা। বিজ্ঞ আদালত আগামী ৫ নভেম্বর বিবাদীদেরকে স্বয়ং কিংবা উকিলের মাধ্যমে উত্তর দানে আদালতে উপস্থিত থাকতে আদেশ করেছেন।