আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের ছোড়া ইটের আঘাতে শিশু তৈয়বুর নিহত


444 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের ছোড়া ইটের আঘাতে শিশু তৈয়বুর নিহত
মে ২৫, ২০১৮ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

আসাদুজ্জামান ::
সাতক্ষীরার আশাশুনিতে ঘরের চাল উঠানোকে কেন্দ্র করে দুই ভাইয়ের ঝগড়ার এক পর্যায়ে ইটের আঘাতে শিশু তৈয়বুর রহমান (১০) নিহত হয়েছে। শুক্রবার সকালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে খুলনা সার্জিক্যাল হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়। নিহত শিশু তৈয়বুর রহমান আশাশুনি উপজেলার পূর্ব নাকনা গ্রামের আব্দুল গণি পাড়ের ছেলে। এ ঘটনায় পুলিশ দুই জনকে আটক করেছে।
আটককৃতরা হলেন, পূর্বনাকনা গ্রামের খলিল পাড়ের স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন ও তার ছেলে ইয়াসিন পাড়ের স্ত্রী নার্গিস খাতুন।
নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, পূর্ব নাকনা গ্রামের আব্দুল গণি পাড় ও আব্দুল খলিল পাড় দুই ভাইয়ের মধ্যে ঘরের চাল উঠানোকে কেন্দ্র করে কথাকাটাকাটি হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে খলিল ও তার দুই ছেলে মহাসিন ও ইয়াসিন একপর্যায়ে গণি পাড়কে লক্ষ্য করে ইট ছুড়ে মারে। তাদের ছোঁড়া একটি ইট ঘরের পাশে দাড়িয়ে থাকা গনি পাড়ের শিশু পুত্র তৈয়বুরের মাথায় লাগে। এতে তার মাথা ফেটে গিয়ে গুরুতর আহত হয়। এরপর তাকে বৃহস্পতিবার বিকালে আহত অবস্থায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। পরে তাকে খুলনা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। এরপর সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে সেখানকার ডাক্তাররা তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পরামর্শ দেন।
শুক্রবার সকালে শিশুটিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে খুলনা সার্জিক্যাল হাসপাতালে নেওয়ার পথেই সে মারা যায়।
আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় ইতিমধ্যে দুইজনকে আটক করা হয়েছে।##
###