আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তঃস্বত্তা মহিলাসহ আহত-৩, থানায় অভিযোগ


149 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তঃস্বত্তা মহিলাসহ আহত-৩, থানায় অভিযোগ
আগস্ট ৯, ২০২০ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

কৃষ্ণ ব্যানার্জী ::

আশাশুনি উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের বুড়িয়া গ্রামে জমাজমির বিরোধ নিওেয় দ্বন্দ্বের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় অন্তঃস্বত্তা মহিলাসহ ৩ জন আহত হয়েছে। আক্রমনকারীরা আসবাবপত্র ভাঙ্গুর করে ক্ষয়ক্ষতি ও স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়েছে। গুরুতর আহত সবিতা রানি মন্ডলকে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এব্যাপারে সবিতার স্বামী জয়ব্রত মন্ডল বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন।
থানায় দাখিলকৃত এজাহার ও আহত সবিতা রানি জানান, একই গ্রামের দুলাল চন্দ্র মন্ডলের পুত্র অমল ও শ্যামল চন্দ্র মন্ডল, অমল চন্দ্র মন্ডলের পুত্র বিপ্লব, শ্যামলের স্ত্রী ভারতী রানি, দুলালের স্ত্রী বাসন্তী রানি, অমলের স্ত্রী অপর্ণা মন্ডলদের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ আছে। এনিয়ে তারা তাদেরকে মারধর ও খুন জখমের ষড়যন্ত্র করে আসছিল। এরই জেরধরে গত ১ আগষ্ট সন্ধ্যায় তারা দ্,া লোহার রড, বাঁশের লাঠিসোটা নিয়ে তাদের বাড়িতে অনাধিকার প্রবেশ করে গালিগালাছ করতে থাকে। জয়ব্রত মৌখিক ভাবে প্রতিবাদ করলে তারা এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করে। জয়ব্রত’র মা মাধবী রানি (৪৫) ঠেকাতে গেলে তাকেও মেরে জখম করা হয়। তখন জয়ব্রত’র ৪ মাসের অন্তঃস্বত্তা স্ত্রী সবিতা রানি এগিয়ে গেলে তলপেটে লাথি মারলে তিনি মাটিতে পড়ে যান, তখন তাকে বেআবরু করতঃ বুকে পেটে চোরাগুপ্তা আঘাত করলে গেপানাঙ্গ দিয়ে রক্ষক্ষরণ শুরু হয়। এসময় আক্রমনকারীরা তার গলা থেকে ৩০ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয় এবং ঘরে ঢুবে আসবাবপত্র ভাংচুর করে ২০ সহ¯্রাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি করা হয়। সবিতাকে স্থানীয় চিকিৎসায় উন্নতি না হলে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পরামর্শে গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়েছে কিনা জানতে স্থানীয় ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে দু’বার আল্ট্রাসনো করা হয়। আস্ট্রাসনো রিপোর্ট দেখে গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়েছে মর্মে তাদেরকে জানানো হয়েছে এবং তার রক্তক্ষরণ এখনো হচ্ছে বলে ইজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে। এব্যাপারে আশাশুনি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

#