আশাশুনিতে সরকারি বরাদ্দ এসেছে ১২ মেঃটন চাউল ও ১ লক্ষ টাকা


141 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে সরকারি বরাদ্দ এসেছে ১২ মেঃটন চাউল ও ১ লক্ষ টাকা
এপ্রিল ১, ২০২০ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

ঘাতক করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বেকার শ্রমিক ও দরিদ্র মানুষের সহায়তা প্রদানের জন্য জেলা প্রশাসক আশাশুনি উপজেলার জন্য দু’দফায় ১ লক্ষ টাকা ও ১২ মেঃটন চাউল বরাদ্দ দিয়েছেন। ঘোষিত ছুটির বড় অংশ পার হলেও সকল অসহায় মানুষের কাছে সহায়তা পৌছান সম্ভব হয়নি। ফলে দরিদ্র ও শ্রমজীবি কর্মত্যাগী মানুষের দুর্দশা বেড়েই চলেছে।
সরকার সারা দেশে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেন। এসময় সকল বাস, মিনিবাস, ইজিবাইক, নিত্য প্রয়োজনীয় নয় এমন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মিল কারখানা, অফিস-আদালত, সেলুনি, চা স্টলসহ অন্য প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এসব সেক্টরের শ্রমিকরা আয় বঞ্চিত হয়ে পড়েন। ফলে তাদের পক্ষে সংসার নির্বাহ ও স্বাভাবিক ব্যয় নির্বাহ অসম্ভব হয়ে পড়েছে। অসহায় মানুষের সহায়তা প্রদানের জন্য জেলা প্রশাসক মহোদয় প্রথম দফায় ৫০ হাজার টাকা ও ৫ মেঃটন চাউল আশাশুনির জন্য বরাদ্দ প্রদান করেন। পরবর্তীতে দ্বিতীয় দফায় আরও ৫০ হাজার টাকা ও ৭ মেঃটন চাউল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ঘোষিত ছুটি ৬ দিন অতিক্রান্ত হয়েছে। আশাশুনি উপজেলার ১১ ইউনিয়নের অসহায় মানুষের মাঝে এ পর্যন্ত আড়াই মেঃটন চাউল ও ৫০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। প্রতি ইউনিয়নে আয় বঞ্চিত শত শত মানুষের মাঝে বিতরণকৃত টাকা ও চাউল খুবই নগন্য। অসহায় মানুষকে দ্রুত সরকারি সহায়তা পৌছে দিয়ে তাদেরকে বাড়িতে কোয়ারিনটাইনে রাখা কার্যকর করতে জোর দাবি জানান হয়েছে।

#