আশাশুনিতে সাংবাদিক কার্যালয় ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান লুটের প্রতিবাদে মানববন্ধন


476 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনিতে সাংবাদিক কার্যালয় ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান লুটের প্রতিবাদে মানববন্ধন
নভেম্বর ২৭, ২০১৮ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

সাতক্ষীরায় সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ‘প্রাণকেন্দ্র’ ও দেশ টিভি- বিডি নিউজের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি’র সাংবাদিক কার্যালয় লুটের প্রতিবাদে আশাশুনি প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় আশাশুনি প্রেসক্লাব ও রিপোর্টার্স কøাব এ মানববন্ধন সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আশাশুনি প্রেসক্লাবের সভাপতি মুজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জিএম আল ফারুক, চ্যানেল নাইনের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি কৃষ্ণ মোহন ব্যানার্জি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবীব, সহ সভাপতি আব্দুল আলীম, রিপোর্টার্স ক্লাবের আহবায়ক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক সমীর রায়, সাহেব আলী, বাংলা টিভি’র জেলা প্রতিনিধি গোপাল কুমার মন্ডল, আনিসুর রহমান বাবলা, আকাশ হোসেন, গোলাম মোস্তফা, বাবুল হোসেন প্রমুখ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।


মানববন্ধন সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন আশাশুনি প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা একেএম ইমদাদুল হক।
উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার সাতক্ষীরার বনানী মার্কেটে অবস্থিত সাতক্ষীরায় সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ‘প্রাণকেন্দ্র’ ও দেশ টিভি- বিডি নিউজের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি শরীফুল্লাহ কায়সার সুমনের কার্যালয়টি তালাবদ্ধ থাকা অবস্থায় ভেঙে লুট করে নিয়ে যায় স্থানীয় সন্ত্রাসী কামরুজ্জামান বুলু ও তার সন্ত্রাসীরা। মার্কেট মালিক আব্দুল জলিল ও বুলু’র মধ্যে বিরোধ থাকলেও এর সাথে প্রাণকেন্দ্রের কোন বিরোধ ছিল না। বিনা কারণে এধরনের ঘটনা ঘটার প্রতিবাদে সাতক্ষীরার সাংবাদিকরা ও সাংস্কৃতিক সংগঠকরা এর প্রতিবাদে নেমে পড়ে।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, গণমাধ্যম কার্যালয়ে যারা হামলা ও লুট করে তারা মানবতার দুশমন। সাংবাদিক কার্যালয়ে হামলা ও লুটের ধৃষ্টতা দেখানোর ঘটনা এটি একটি দুঃসাহস। অবিলম্বে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে এবং দোষীদের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ নিতে হবে।
প্রসঙ্গত বিডি নিউজ, দেশ টিভি প্রতিনিধি’র ব্যক্তিগত কার্যালয় ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান প্রাণকেন্দ্র ভাংচুর করে জিনিসপত্র লুটপাট করে নিয়ে গেছে। ভবনের কক্ষটি ভাড়া প্রদান করেন পলাশপোলস্থ আব্দুল জলিল। আব্দুল জলিলের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার সকালে আলবারাকা শপিং মলের মালিক কামরুজ্জামান বুলু ও তার বাহিনী নিয়ে বনানী মার্কেটের ছাদ ভেঙে ক্যামেরা, ল্যাপটব, হারমোনিয়াম, তবলা, বয়া, ট্রাইপড, চেয়ারসহ মুল্যবান জিনিস দিন দুপুরে লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মমতাজ বাপীসহ সাংবাদিকরা। উল্লেখ্য এই কার্যালয়েই শিল্প সাহিত্যসহ বিডি নিউজ পরিচালিত হ্যালো’র শিশু সাংবাদিকতার বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালিত হয়।
##