আশাশুনির আনুলিয়ায় বিএনপি দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী কুদ্দুসের বাড়ি ভাংচুর


367 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির আনুলিয়ায় বিএনপি দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী কুদ্দুসের বাড়ি ভাংচুর
মার্চ ১৫, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

আসাদুজ্জামান :
সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী রুহুল কুদ্দুসসহ তার স্বজনদের ৬টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট করেছে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী ও তার সমর্থকরা। মঙ্গলবার বিকেলে আ’লীগ প্রার্থী আলমগীর আলম লিটনের নেতৃত্বে তার শতাধিক সমর্থক তাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে এই ভাংচুর করে। এই সময় বিএনপি প্রার্থী রুহুল কুদ্দুসের ৫ সমর্থক আহত হন। আহতরা হলেন, আনুলিয়া ইউনিয়নের একসরা গ্রামের শফিকুল ইসলাম, মোকসেদ শিকারী ও রাজাপুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম ও শুভসহ পাচ জন।
আ’লীগ প্রার্থীর ব্যবহৃত শর্টগান থেকে এ সময় দুই রাউন্ড গুলি বর্ষন করলে এলাকায় সাধারন জনগণের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে বলে জানা গেছে।
আনুলিয়া ইউনিয়নের বিএনপি মনোনিত প্রার্থী রুহুল কুদ্দুস জানান, ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষনার পর থেকেই তাকে ্ইউনিয়নে ঢুকতে দিচ্ছিলেন না আ’লীগ প্রার্থী আলমগীর আলম লিটন ও তার লোকজন। এলাকায় তার ধানের শীষ প্রতীকের পোষ্টার ছিড়ে ফেলাসহ তার কর্মী-সমর্থকদের মারপিট করা হচ্ছে। সোমবার তার কয়েকজন কর্মী ভোলানাথপুর এলাকায় গেলে তাদের উপর হামলা চালিয়ে মারপিট করে লিটনের লোকজন। এঘটনায় উল্টো তাকেসহ তার কর্মীদের নামে আশাশুনি থানায় একটি মিথ্যে মামলা দায়ের করা হয়।
তিনি আরো বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে তিনি এলাকায় গিয়ে স্থানীয় একসরা বাজারে একটি পথসভা শেষে কবর জিয়ারত করে মনিপুর এলাকার দিকে যান। তিনি বাড়ি এসেছেন জানতে পেরে বিকেলে লিটন শতাধিক লোজন নিয়ে একসরা গ্রামে তাদের বাড়িসহ তার স্বজনদের বাড়িতে  হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করা হয়। এসময় তার বাবার জমির দলিল ও মায়ের দুইভরি ওজনের সোনার গহনাসহ অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র তারা লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনার সময় লিটন তার ব্যবহৃত শর্টগান থেকে দুই রাউন্ড গুলি ছুড়লে এলাকায় আতংকের সৃষ্টি হয়। তবে হামলার সময় তিনি বাড়িতে না থাকায় প্রাণে বেঁচে গেলেও তার ৫ সমর্থক আহত হন।। এলাকায় থেকে যাতে  নির্বিঘেœ নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারেন সেজন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এব্যাপারে জানার জন্য যোগাযোগ করা হলে আনুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী আলমগীর আলম লিটন তার প্রতিপক্ষ বিএনপি প্রার্থী রুহুল কুদ্দুসের বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা অস্বীকার করেন। একই সাথে তার ব্যবহৃত শর্টগান থেকে গুলি ছোড়ার ঘটনা সঠিক নয় বলে তিনি দাবি করেন।
আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান মুন্সী আনুলিয়া ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থী রুহুল কুদ্দুসের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনাটি শুনেছেন স্বীকার করে বলেন, ঘটনাস্থল একসরা গ্রামে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।##