আশাশুনির ইউএনও’র গাড়ির চালকপুত্র হিরন্ময় ডিবি পুলিশ ! ছাগল চুরির মিথ্যা অপবাদে মার খেলেন বৃদ্ধ নেছারউদ্দিন


445 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির ইউএনও’র গাড়ির চালকপুত্র হিরন্ময় ডিবি পুলিশ ! ছাগল চুরির মিথ্যা অপবাদে মার খেলেন বৃদ্ধ নেছারউদ্দিন
সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৫ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

বিশেষ প্রতিনিধি :
ঘটনার শুরু আশাশুনির বুধহাটার শহিদুলের একটি ছাগল হারানো নিয়ে ।  ছাগল খুঁজে না পেয়ে উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপানোর চেষ্টা হয়েছে । ব্যর্থ হয়ে বৃদ্ধ নেছারউদ্দিনকে বেপরোয়া মারপিট করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন ।  এ ঘটনা শেষ পর্যন্ত গড়িয়েছে আদালত পর্যন্ত ।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার  হাবাসপুর গ্রামের নেছারউদ্দিন জানান, সম্প্রতি  বুধহাটা গ্রামের খোকা গাজির ছেলে শহিদুল ইসলামের একটি ছাগল বাড়ি থেকে হারিয়ে যায় ।  এ জন্য শহিদুল ও তার লোকজন সন্দেহ করে ছাগল ব্যবসায়ী নেছারউদ্দিনকে।  এ নিয়ে প্রথমে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ ও পরে বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে যেয়ে সালিশও বসে । চেয়ারম্যান আবদুল হান্নান পর পর চারদিন সালিশ করে নিশ্চিত হন যে নেছারউদ্দিন ছাগলের বিষয়ে কিছুই জানেন না ।

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এসে নেছারউদ্দিন ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকমকে জানান, এ ঘটনার পর একমাস  কেটে গেছে ।  তিনি অভিযোগ করে বলেন গত ২ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় তিনি  শহিদুল ইসলামের বাড়ির কাছ দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন ।  এ সময় শহিদুল  , তার স্ত্রী খুকু বিবি, ছেলে  মহব্বত হোসেন বিপু , শ্বেতপুর গ্রামের  জালাল হোসেনের ছেলে বকুল এবং আশাশুনির ইউএনওএর গাড়ি চালক তুলশি আঢ্যের ছেলে  হিরন্ময় আঢ্য তার ওপর হামলা করে ।  তারা  পেছন দিক থেকে  তার গামছা কেড়ে নিয়ে তাকে পিটমোড়া দিয়ে বেঁধে ফেলে ।  পরে তাকে কিল ঘুষি মারতে মারতে কাবু করে শহিদুলের বাড়ির ছাদে  নিয়ে বিবস্ত্র করে রাত প্রায় ৯ টা পর্যন্ত  বেঁধে রাখে । তার কাছে থাকা ১৬ হাজার তিনশ’ টাকাও কেড়ে নেয় তারা । হিরন্ময় আঢ্য নিজেকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে তাকে জেল খাটানোরহুমকি দেয় ।

নেছারউদ্দিন আরও জানান  তীব্র যন্ত্রনায় তিনি কোঁকাতে থাকলে  লোক মারফত খবর পেয়ে আশাশুনি থানার এসআই আবদুর রাজ্জাক ঘটনাস্থলে এসে তাকে উদ্ধার করেন এবং নিজেই বাঁধন খুলে দেন । এসআই রাজ্জাক ছিনিয়ে নেওয়া টাকাও ফেরত দেন নেছারকে । তিনি একজন সাধারন ব্যবসায়ী । তার সামাজিক মান সম্মান রয়েছে । ছাগল চুরির মতো ঘৃন্য অপরাধের দায় চাপাতে ব্যর্থ হয়ে শহিদুলের ছেলে বিপুর নেতৃত্বে তার ওপর হামলা হয়েছে ।  তাকে সামাজিকভাবে অপমানিত করা হয়েছে ।  তিনি এর প্রতিকার দাবি করে  গত রোববার সাতক্ষীরার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেছেন ।   আদালত বিষয়টি তদন্ত করে আগামি ২৭ অক্টোবর রিপোর্ট দেওয়ার জন্য আশাশুনি থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন ।

নেছার জানান, এই মামলা করার পর ইউএনওএর গাড়ি চালকপুত্র  হিরন্ময় তাকে ফের হুমকি দিয়েছে ।  ‘ এবার তোকে পিটেয় হাড় ভেঙ্গে দেবো  এবং জেলও খাটাবো ’ শাসিয়েছে সে ।