আশাশুনির ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল এক স্কুল ছাত্রী


488 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রক্ষা পেল এক স্কুল ছাত্রী
জুলাই ২৪, ২০১৫ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

গোপাল কুমার, আশাশুনি ব্যুরো :
আশাশুনিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে বাল্য বিবাহ থেকে রেহাই পেল সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রী। বৃহস্পতিবার দুপুরে শোভনালী ইউনিয়নের শালখালী গ্রামে মোজাফফর হোসেন তার নাবালিকা কন্যার (১৪) বিয়ের আয়োজন করেন। সে কামালকাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৭ম শ্রেণীতে পড়ালেখা করে। বিয়ের দিন দুপুরে কয়রা উপজেলার গোবিন্দকাটি গ্রামের ইদ্রিস আলির পুত্র মনিরুল বর বেশে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়। স্থানীয় এক এনজিও কর্মীরা বাল্য বিয়ে বন্ধের চেষ্টা চালিয়ে বিফল হন। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাম্মাৎ মমতাজ বেগমকে জানানো হলে তিনি বিয়ে বন্ধে উদ্যোগী হন। বিবাহ বাড়িতে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বরপক্ষ বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে পালিয়ে যায়।