আশাশুনির খাজরায় দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময়


170 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির খাজরায় দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময়
সেপ্টেম্বর ৮, ২০২২ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার ::

আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নে আসন্ন শারদীয় দূর্গা পূজা নির্বিগ্নে উদযাপনের লক্ষ্যে আশাশুনি থানা প্রশাসন ও খাজরা ইউনিয়ন পূজা উদযাপন কমিটির সাথে আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার(৮ সেপ্টেম্বর) সকালে খাজরা বাজার দূর্গা মন্দির চত্ত্বরে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটি খাজরা ইউনিয়ন শাখার আয়োজনে এ আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উত্তম মন্ডলের সঞ্চলানায় এ আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসিবে আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মমিনুল হক পিপিএম বার,বিশেষ অতিথি হিসেবে আশাশুনি থানার এসআই আবুল হোসেন,খাজরা ইউপি চেয়ারম্যান ও আশাশুনি উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব এস এম শাহনেওয়াজ ডালিম আসন্ন দূর্গা পূজা সুষ্ঠুভাবে পালনের লক্ষ্যে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্য ও বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।
বাংলাদেশে পূজা উদযাপন পরিষদ খাজরা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা দীনেশ চন্দ্র মন্ডলের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে পূজা উদযাপন পরিষদ খাজরা ইউনিয়ন শাখার সহ-সভাপতি প্রদীপ চক্রবর্তী,আওয়ামীলীগ নেতা সাবেক ইউপি সদস্য মিলন কান্তি মন্ডল ,খাজরা,খালিয়া,ফটিকখালী,পারিশামারী,গদাইপুর,তুয়ারডাঙ্গা দূর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি মন্ডলী।
এসময় প্যানেল চেয়ারম্যান রামপদ সানা,সাইফুল ইসলাম বাচ্চু,ইউপি সদস্য মফিজুল ইসলাম,হাসমত ঢালী,সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ জালাল মোড়ল,মিলন রানী হরি,আনারুল ইসলাম,রিপন হোসেন,তহমিনা বেগম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন,দূর্গা পূজায় পূজা উদযাপন পরিষদ,স্বেচ্ছাসেবকসহ আশাশুনি থানা পুলিশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। পূজারী ও ভক্তবৃন্দের আগমন প্রস্থান নির্বিগ্নে চলাচলের ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে। সার্বক্ষনিক আমি ও টিম,আনসার সদস্যগন দায়িত্ব পালন করবে।
বিশেষ অতিথি খাজরা ইউপি চেয়ারম্যান শাহনেওয়াজ ডালিম বলেন,আমি বিগত সময়ে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন কালে এবং বর্তমানেও আমার ইউনিয়নে হিন্দু ধর্মালম্বীদের সব চেয়ে বড় উৎসব দূর্গা পূজা কোন ধরনের সহিংসতা ও অপ্রিতীকর ঘটনা ঘটতে দেইনি। এবারও তার ব্যত্যয় হবে না। আমি আরো সিদ্ধান্ত নিয়েছি আইন শৃংখলা স্বাভাবিক রাখতে এবার ইউনিয়নে ১৪টি মন্দিরে মন্দির কমিটি ও আমার ব্যক্তি অর্থায়নে সিসি ক্যামেরা বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সে সমস্ত মন্দির কমিটির আর্থিক সামর্থ কম তাদের আমার নিজস্ব তহবীল ও সরকারিভাবে সহযোগিতা করার আশ্বাস দিচ্ছি।
পরে প্রধান অতিথি খাজরা কেন্দ্রীয় দূর্গা মন্দির ও খাজরা ইউনিয়ন পরিষদে নতুন ভোটারদের ছবি তোলা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।