আশাশুনির প্রতাপনগর ইউনিয়নকে শিশু বিবাহমুক্ত ইউনিয়ন গণ-ঘোষণা


503 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির প্রতাপনগর ইউনিয়নকে শিশু বিবাহমুক্ত ইউনিয়ন গণ-ঘোষণা
নভেম্বর ২৭, ২০১৫ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান :
আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নকে শিশু বিবাহমুক্ত ইউনিয়ন হিসাবে গণ-ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। গতকাল (বৃহস্পতিবার) বিকালে প্রতাপনগর ইউনাইটেড একাডেমী হাই স্কুল মাঠে এ গণ-ঘোষণা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ইউনিসেফের সহোযোগিতায় সিফরডি প্রকল্পের আওতায় ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে এবং রূপান্তরের ব্যবস্থাপনায় “বাল্য বিবাহকে না বলি-সুস্থ সুন্দর সমাজ গড়ি” এই স্লোগানকে সামনে রেখে শত শত মানুষের উপস্থিতিতে সকলের শপথ বাক্য পাঠের মাধ্যমে শিশু বিবাহ মুক্ত গণ-ঘোষণা প্রদান করা হয়।
প্রকল্পের ইউসি মোঃ মোশারেফ আলী সোহেল ও সহকারী শিক্ষক মোঃ রিয়াজ আলীর পরিচালনায় গণ-ঘোষণা পূর্ব আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন।
প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এ বি এম মোস্তাকিম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাম্মাৎ মমতাজ বেগম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফাতেমা জোহরা, রূপান্তর এরিয়া ম্যানেজার আশালতা মন্ডল, এ্যাডমিন অফিসার ফজলুল হক, পিআইও সেলিম খান ও পিবিএস পরিচালক ফেরদৌস আলী। প্রধান অতিথি আনুষ্ঠানিকভাবে উপস্থিত সকলকে “আমরা শপথ করছি যে, ১৮ বছরের আগে মেয়ে এবং ২১ বছরের আগে ছেলের বিয়ে দেবনা, এটা আমাদের অঙ্গীকার” শীর্ষক শপথ বাক্য পাঠ করান।
অতিথিবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, বালিকা বধু নয়/গার্লস নট ব্রাইট, আসুন আমরা সকলে শিশু বিবাহকে না বলি, মেয়ের ১৮ আর ছেলের ২১ বছর বয়স পূর্ণ না করে বিযে দিলে কিংবা বিয়ের আয়োজন-চেষ্টা বা বিয়েতে সহযোগিতা করা দন্ডনীয় অপরাধ। শিশু বিবাহরোধে অভিভাবক, সমাজপতি, জনপ্রতিনিধিসহ সরকারি-বেসরকারি সকল স্তরের জনগণকে এগিয়ে আসতে হবে। অনুষ্ঠানে ইউসি অসীম মহলদার, স্বপন মন্ডল, ওয়ার্ড প্রমোটার মোর্তাজুল, শরিফুল, সালমাসহ ৯টি ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য, সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তা, ডাব্øিডিসি সদস্য, কিশোর-কিশোরী সংগঠন, ম্যারেজ রেজিষ্টার, ইমাম, শিক্ষক, সাংবাদিক, অবিভাবক, এসএমসির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সবশেষে শিশু বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক নাটক মঞ্চস্থ করা হয়।