আশাশুনির বুধহাটায় মিকাঈলের সংবাদ সম্মেলন


439 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির বুধহাটায় মিকাঈলের সংবাদ সম্মেলন
নভেম্বর ২৫, ২০১৮ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা আঞ্চলিক প্রেসক্লাবে শ^শুর বাড়ির লোকদের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রেহাই পেতে অসহায় মিকাঈল ইসলাম সংবাদ সম্মেলন করেছেন। রবিবার বিকালে প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।
কাদাকাটি গ্রামের মৃত আঃ রউফ সরদারের পুত্র মিকাঈল লিখিত বক্তব্য ও সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বলেন, ২ বছর আগে তার সাথে ভালুকা চাঁদপুর গ্রামের জুলিয়া খাতুনের নানীর বাড়িতে জুলিয়ার সাথে তার বিয়ে হয়েছিল। বিয়ের ১৪ মাস পর জুলিয়া দাখিল পরীক্ষা শেষে তার মামা মিঠুর সাথে ঢাকায় তার (মিকাঈল) বাসায় যায়। সেখানে থাকাবস্থায় রামপুরায় তার মামার বাসায় দাওয়াত করলে সেখানে ৫ দিন অবস্থান করেছিল। এসময় মিঠু ও মিঠুর স্ত্রীর মধ্যে তুমুল ঝগড়া হলে জুলিয়া বিষয়টি তার নানি খালেদাকে জানিয়ে দেয়। নানিকে জানানোর অপরাধে মিঠু জুলিয়াকে মোবাইলে খারাপ কথা ও হুমকী ধামকী দিলে মান-অভিমান ও দুঃখ-কষ্ট সহ্য করতে না পেরে একদিন পর জুলিয়া স্বামীর বাসায় আত্মহত্যা করে। ময়না তদন্ত রিপোর্টে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে উল্লেখ করা হয়। এনিয়ে কারো কোন অভিযোগ না থাকলেও আত্মহত্যার ৬ মাস পর নানি খালেদা বেগম ও তার পুত্র মিঠু তার (মিকাঈল) কাছে ১০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে না দিলে হত্যার হুমকী দেয় এবং ১৫ দিন আগে তাকে বুধহাটা বাজারে ফেলে সন্ত্রাসী স্টাইলে মারপিট করে দাবী করে তিনি বলেন, এরপরও তারা থেমে থাকেনি বরং ছবি দিয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক সংবাদ প্রকাশ ও প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছে। এব্যাপারে তিনি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
##