আশাশুনির মরিচ্চাপ ব্রীজের মেরামত কাজের উদ্বোধন


935 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির মরিচ্চাপ  ব্রীজের মেরামত কাজের উদ্বোধন
আগস্ট ৮, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

গোপাল কুমার,আশাশুনি :
সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আশাশুনির মরিচ্চাপ নদীর উপর নির্মিত বেইলী ব্রীজের মেরামত কাজ উদ্বোধন করা হল। মরিচ্চাপ ব্রীজের ডেকিং পরিবর্তন কাজে ৩কোটি ৫৪ লক্ষ ৪৪ হাজার ৪শ ৪১ টাকা বরাদ্দ হয়েছে। সোমবার দুপুরে উক্ত মেরামত কাজ উদ্বোধন করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম ও ক্যাপ্টেন আক্তার হোসেন (নেভি) ও অতিথিবৃন্দ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম তিনি তার বক্তব্যে বলেন,  দীর্ঘ জনদুর্ভোগ পেরিয়ে প্রতিক্ষার পর অবশেষে শুরু হওয়ায় আমরা আনন্দিত। প্রত্যহ হাজার হাজার লোক এ ব্রীজ দিয়ে যাতাওয়াত করে।

যাত্রীবাহি  ও মালবাহি গাড়ী সহ সকল প্রকারের যানবাহন চলাচল করে আশাশুনি উপজেলা বাসির একমাত্র জেলা শহরে যাতাওয়াতের পথ। কিন্তু বিগত ৫/৬ বছর ধরে ব্রীজের অবস্থা এতবেশি নাজুক হয়ে পড়েছিল যে, যাত্রী ও মালবাহি বাস ট্রাক তো দুরের কথা মানুষের পায়ে হাটারপথ ও হারিয়ে ফেলেছিল। উচ্চপদস্থ কর্তাদের আগমনের পূর্বে ঝালাই পটি মেরে কোন রকম চলেছে এতদিন। এলাকাবাসির দাবীর মুখে ও পত্র পত্রিকায় ফলাও করে ব্রীজের দন্যদশা প্রকাশিত হওয়ার পর, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সরকারের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা এ ব্রীজ পরিদর্শন করেছেন কিন্তু কোন আশানুরূপ ফল হয়নি। সকল আশা-ভরশা, যখন ম্লান হয়ে হয়ে যেতে বসেছিল। এমনি মুহুর্তে আশাশুনির রক্ত মাটিতে যার জন্ম, যিনি আশাশুনি থেকে মেট্রিকুলেশন শেষ করে সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার আসন অলংকৃত করেছেন, তিনি আর কেউহ নন, বর্তমান সরকারের দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বাচ্চু।

তিনি সম্প্রতি আশাশুনিতে তার স্মৃতি বিজড়িত আশাশুনি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিদর্শনে আসেন। সে সময় আমি সহ তার সহপাঠি ও এলাকাবাসির প্রাণের জোর দাবীর মুখে  তিনি সরাসরি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে মুঠোফোনে ব্রীজের দন্যদশার কথা সংক্ষেপে তুলে ধরে সুপারিশ করেন। তারই ফলশ্রুতিতে আজকের এই ব্রীজের ডেকিং পরিবর্তন কাজ উদ্বোধন করতে পারছি। এ জন্য এলাকাবাসির দাবী পুরণ হতে যাওয়ায় জনাব ইকবাল মাহমুদ বাচ্চু সাহেবকে ভুয়ষী প্রশংসা সহ দীর্ঘায়ু কামনা করছি। তিনি অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে দ্রুত মেরামত কাজ সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ও দুর্ভোগের শিকার ভুক্তভোগী জনগণকে মেরামতকাজ সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত ধর্য্য ধারণ করার আহবান জানান। বক্তব্যের প্রারাম্ভে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে কাজের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।

Gopal-08.05 (1)
সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার সময় মরিচ্চাপ বেইলী ব্রীজের চাপড়া পারে সড়ক ও জনপথ বিভাগ সাতক্ষীরার নির্বাহী প্রকৌশলী মঞ্জুরুল করিমের সভাপতিত্বে ও উপ সহকারি প্রকৌশলী জিয়া উদ্দীনের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন চিটাগাং ড্রাইডক লিঃ (বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর একটি প্রতিষ্ঠান) এর জেনারেল ম্যানেজার ক্যাপ্টেন আক্তার হোসেন, ক্যাপ্টেন আব্দুল লতিফ, লেফট্যানান্ট টিকে দেবনাথ, আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুষমা সুলতানা, উপজেলা প্রকৌশলী শামীম মুরাদ, আরডিও আবু বিলাল হোসেন, আশাশুনি প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এস.এম আহসান হাবিব সহ স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ, গন্যমান্য ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ জনগণ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম ও চিটাগাং ড্রাইডক লিঃ এর জেনারেল ম্যানেজার ক্যাপ্টেন আক্তার হোসেন সহ উপস্থিত অতিথি বৃন্দ একযোগে ব্রীজের ডেকিং পরিবর্তন কাজের উদ্বোধন করেন।

প্রসঙ্গত, আশাশুনি মরিচ্চাপ নদীর উপর নির্মিত ১৯৯১-৯৪ সালে ২৪২.৪২মিটার দৈর্ঘ্য মরিচ্চাপ ব্রীজের ডেকিং পরিবর্তন কাজে ৩কোটি ৫৪ লক্ষ ৪৪ হাজার ৪শ ৪১ টাকা ব্যয় বরাদ্দ ধরা হয়েছে। এ কাজ সম্পন্ন করতে আনুমানিক ২মাস সময় লাগবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ প্রতিবেদককে জানান। নির্বাহী প্রকৌশলী (চঃদাঃ) সওজ, সড়ক বিভাগ জানান, কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত সাময়িক ভাবে সেতুর উপর দিয়ে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে তবে পথচারী পায়ে হেটে চলাচল করতে পারবে। কিন্তু জেলার সাথে যোগাযোগ রক্ষা এবং আশাশুনি উপজেলার বড় একটি অংশসহ কালিগঞ্জ ও শ্যামনগর উপজেলার অসংখ্য মানুষের চলাচল পথ বন্ধ করার আগে বিকল্প ব্যবস্থা হিসাবে বিকল্প পথ হিসাবে সহজতর পথ শোভনালী ব্রীজের ব্যবহার। অথচ ব্রীজটি নির্মান কাজ করা হলেও এপ্রোজ সড়কের কাজ সম্পন্ন না হওয়ার কারনে সেটি দীর্ঘ কয়েক বছর অব্যবহৃত হয়ে আছে। আপাততঃ এ্যপ্রোজ সড়কটির দক্ষিণ পার্শ্বে সামান্য কাজ করে ছোট যানবাহন চলাচল ব্যবস্থা করলে মানুষের ভোগান্তি কিছুটা হলেও লাঘব হতো। তাছাড়া পুরাতন খেয়াঘাটের কাছে ছোট যানবাহন পারাপারের জন্য বিকল্প খেয়া পারাপারের সাময়িক ব্যবস্থা রাখা যায় কিনা সেবিষয়ে জেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন সহ উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন  ভুক্তভোগী এলাকাবাসী।