আশাশুনির শোভনালী ইউপি সদস্য ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করায় এক ব্যক্তিকে জঙ্গি বলে ফাঁসানোর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন


407 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির শোভনালী ইউপি সদস্য ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের প্রতিবাদ করায় এক ব্যক্তিকে জঙ্গি বলে ফাঁসানোর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
জুলাই ২৪, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ রিপোর্টার :
সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার শোভনালী ইউপির মেম্বার ফারুক হোসেন গাজীর বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করায় এক ব্যক্তিকে মারপিট ও জঙ্গি আখ্যায়িত করে ফাঁসানোর অপচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। রোববার সকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে দেবহাটা উপজেলার দক্ষিণ পারুলিয়া গ্রামের ক্বারী ফজলুল হক আমিনী এই অভিযোগ করেন।

এসময় লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ফারুক হোসেন গাজী সম্পর্কে তার ভগ্নিপতি। গত ১৪ জুলাই অনৈতিক কর্মকা-ের প্রতিবাদ করায় তার বোনকে প্রকাশ্যে মারপিট করে ফারুক হোসেন গাজী। সংবাদ পেয়ে ফজলুল হক আমিনী ঘটনাস্থলে গেলে তাকেও মারপিট করা হয়। ওই সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ফজলুল হক আমিনীর ছোট ভাই মোস্তাফিজুর রহমান দেবহাটা থানায় সাধারণ ডায়েরি করে। পরের দিন স্থানীয় একটি দৈনিকে এ খবর প্রকাশ হলে ফজলুল হক আমিনী তার ফেইসবুকে ওই সংবাদটি পোস্ট করেন। এর জবাবে ফারুকের ছোট ভাই গাজী আরিফ, তার বন্ধু হামিদুল্লাহর ছেলে হাবিবুল বাসার ফরহাদ তাদের নিজ নিজ আইডি থেকে ফেইসবুকে ফজলুল হক আমিনী, তার শ্বশুর লুৎফর রহমান, চাচা শ্বশুর আব্দুল হামিদ পেয়াদা এবং ইলিয়াস হোসেনকে জঙ্গিমদদদাতা, রাজাকার, আফগান মুজাহিদ ইত্যাদি উল্লেখ করে দুটি পোস্ট দেয়।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি এঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, তার বিরুদ্ধে থানায় ডায়েরি পর্যন্ত নেই। শুধু তাই নয়, তিনি স্বাধীনতার স্বপক্ষের বিভিন্ন কর্মকান্ডে অংশ নেন এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ কমিটির ইউনিয়ন পর্যায়ের সদস্য এবং তার পিতা একজন মুক্তিযোদ্ধা।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি শোভনালী ইউপির মেম্বার ফারুক হোসেন গাজী ও তার সহচরদের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে আইসিটি আইনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।