আশাশুনির শ্রীউলায় ১৫টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে উচ্ছেদ


199 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনির শ্রীউলায় ১৫টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে উচ্ছেদ
জুন ২৬, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের মাড়িয়ালায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। বুধবার (২৬ জুন) বিকালে ৫ ঘন্টা ব্যাপী অভিযানে স্থাপনা ভেঙ্গে উচ্ছেদ করা হয়।
মাড়িয়ালা মৌজায় ১নং খাস খতিয়ানে ৮০১ দাগে ৫.০৮ একর জমি স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তি অবৈধ দখলে নিয়ে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে স্থাপনা নির্মান করে দীর্ঘদিন যাবৎ ব্যবসা ও ভোগদখল করে আসছিলেন। এব্যাপারে ইউনিয়ন ভূমি অফিস হতে অবৈধ দখল ও স্থাপনা সরিয়ে নিতে নোটিশ করা হলেও মানা হয়নি। ২৪ জুন সহকারী কমিশনার (ভূমি) পাপিয়া আক্তার সরেজমিন গিয়ে ব্যবসায়ীদেরকে মালামাল সরিয়ে নিতে ও দখল ছেড়ে দিতে আদেশ করে আসেন। কিন্তু সে আদেশও মান্য করা হয়নি। জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশনা মোতাবেক আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা বুধবার মাড়িয়ালা মোড়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। প্রথমে তিনি দোকানের মালামাল নিজ দায়িত্বে সরিয়ে নিতে এবং অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে অপসারণ করতে আদেশ করেন। তখন সকল ব্যবসায়ী মালামাল সরিয়ে নেন এবং অনেকে স্থাপনার কিছু কিছু ভেঙ্গে নেন। এরপর মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে রুলার দিয়ে এবং শ্রমিক কাজে লাগিয়ে সমস্ত স্থাপনা ভেঙ্গে উচ্ছেদ ও অপসারণ করা হয়। ব্যবসায়ী শামীম, জাহাঙ্গীর, আবুল হোসেন, আঃ সালাম, ইনছার আলি, খলিলুর রহমান, খোকন, মহসিন ও আঃ ওহাবসহ মোট ১৫ জন ব্যবসায়ীর ১৫টি ঘর ভাঙ্গা হয়। অবৈধ দখলমুক্ত করে সরকারি খাস জমি সরকারের আওতায় দখল নেওয়া হয়। এরপর সেখানে একটি বৃক্ষ রোপন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা। এসময় সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পাপিয়া আক্তার, র‌্যাব ও পুলিশ বাহিনীর কর্মকর্তা, শ্রীউলা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মহসিন আলি উপস্থিত ছিলেন।

#