আশাশুনি পূজা উদযাপন পরিষদের প্রতিবাদ সমাবেশ


448 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি পূজা উদযাপন পরিষদের প্রতিবাদ সমাবেশ
অক্টোবর ১০, ২০১৫ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

গোপাল কুমার, আশাশুনি :
বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ আশাশুনি উপজেলা শাখার উদ্যোগে প্রতাপনগরে শারদীয়া দূর্গামন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের প্রতিবাদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকালে সদর কালী পূজা মন্দিরে সভাপতিত্ব করেন পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি অধ্যাপক সুবোধ কুমার চক্রবর্তীর।

প্রতিবাদ সমাবেশ প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি মনোরঞ্জন মুখার্জী। ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রণজিৎ কুমার বৈদ্যর সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশ বক্তব্য রাখেন জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এড. অনিত মুখার্জী, যুগ্ম সম্পাদক অসীম বরণ চক্রবর্তী,  সুভাষ চন্দ্র ঘোষ, উপজেলা সহ-সভাপতি কালীপদ রায়, যোগেন্দ্র নাথ সরকার, ইউনিয়ন সভাপতি অধ্যক্ষ চিত্তরঞ্জন ঘোষ, উদয় কান্তি বাছাড়, মনিমোহন মন্ডল, সত্যজিৎ মন্ডল, দীনেশ মন্ডল, সঞ্জয় রায়, তপন কর্মকার প্রমুখ। সভায় থানা অফিসার ইনচার্জ একেএম আজমুল হুদা তার বক্তব্যে বলেন, প্রতিমা ভাংচুরে আমরা যে-যে ধর্মের হইনা কেন তার প্রতিবাদ করা উচিত। তিনি উপস্থিত সকলকে আস্বস্ত করে বলেন, পুলিশ অত্যান্ত ততপর রয়েছে এবং স্থানীয়দের সহযোগীতা চাই। সঠিক ব্যক্তি জানতে পারলেই যে কোন মূল্যে তাকে গ্রেফতার করা হবে। আগামীতে যাতে এমন ঘটনা না ঘটতে পারে সে জন্য পুলিশের পাশা-পাশি প্রত্যেক মন্দির কমিটির স্বেচ্ছাসেবক বাহিনী ততপর থাকার আহবান জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সমীরণ বিশ্বান, কিশোরী মোহন বৈদ্য, তুলসী পাল, কাশিনাথ মন্ডল, গোপাল কুমার মন্ডল, কাজল মন্ডল, শংকর মন্ডল, দীপন মন্ডল, পরেশ অধিকারী, অমিত হালদার, কৃষ্ণপদ  মন্ডল, সঞ্জয় বিশ্বাস, সুরঞ্জিত সানা, মতিলাল সরকার, অরুন রায়, দুঃখেরাম মন্ডল, সুরঞ্জন, বাপন মিত্র, শ্রীদাম বাছাড়, সুবীর মন্ডল, সভায় আসন্ন দুর্গোৎসব শান্তিপূর্ণ ও ঝুঁকিমুক্ত পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। উল্লেখ্য এবছর আশাশুনিতে ১০০টি সার্বজনীন মন্দিরে ও ১টি পারিবারিক মন্দিরে দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হবে।