আশাশুনি বেইলী ব্রীজের পাত বসে যাচ্ছে ॥ দীর্ঘস্থায়িত্ব নিয়ে উদ্বেগ


443 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি বেইলী ব্রীজের পাত বসে যাচ্ছে ॥ দীর্ঘস্থায়িত্ব নিয়ে উদ্বেগ
মে ২৭, ২০১৭ আশাশুনি
Print Friendly, PDF & Email

আশাশুনি প্রতিনিধি ::

আশাশুনি উপজেলার মরিচ্চাপ নদীর উপর সদ্য পুনঃ নির্মীত বেউলী ব্রীজের মাঝ বরাবর পাত বসতে শুরু করায় ব্রীজের স্থায়ীত্ব নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। কার্যকর পদক্ষেপ না নিলে ব্রীজটিতে যানবাহন চলাচল বন্ধ হওয়ার উপক্রম হতে পারে।

এলাকার মানুষ জেলা শহরসহ অন্যত্র সড়ক যোগাযোগ রক্ষা করতে এই ব্রীজটি ব্যবহার করে থাকে। দীর্ঘকাল যাবৎ ব্রীজের পাত নষ্ট থাকায় চরম ঝুঁকি নিয়ে যানবাহান বা মানুষ ব্রীজের উপর দিয়ে যাতয়াত করতো। ফলে অসংখ্য দুর্ঘটনা ঘটেছে।

বহু মানুষ নিহত হয়েছে বা পঙ্গৃত্ববরণ করেছেন। ব্রীজে বড় যানবাহন চলাচলও অনেকবার বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক তদবীর ও দেন দরবারের পর ব্রীজে নতুন পাত লাগানো হয়েছে মাত্র ৫/৬ মাস আগে। ব্রীজের দু’ মাথায় দুই ধরনের পাত ব্যবহার করা হয়েছিল।

তাই পুনরায় নতুন পাত স্থাপনের সময় দুই কোয়ালিটির পাত ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে ব্রীজের মাঝ বরাবর অনেকটা উচু-নীচু থাকায় যানবাহন চলাচলের সময় নীচে থেকে উপরে উঠতে গিয়ে কিংবা উপর থেকে নীচে নামতে গিয়ে বড় ধরনের ধাক্কা লেগে থাকে।

এতে পাত আস্তে আস্তে আরও নীচে নেমে যাচ্ছে। হয়তো এক সময় ভেঙ্গে বা ছাড়িয়ে যেতে পারে। ব্রীজের মুখে ১০ টনের বেশী ওজনের যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞার নোটিশ থাকলেও সেটি মানা হচ্ছেনা। ফলে সমস্যাটা আরও প্রকট হচ্ছে।

এব্যাপারে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, ১০ টনের বেশী ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধ করাতে হবে। নইলে যানবাহনের ধাক্কায় ব্রীজের চরম ক্ষয়ক্ষতি হবে।

এব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার জোর দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।
##