আশাশুনি সংবাদ ॥অজ্ঞাত ব্যক্তির ভাসমান লাশ উদ্ধার


154 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥অজ্ঞাত ব্যক্তির ভাসমান লাশ উদ্ধার
জুলাই ২, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস কে হাসান ::

আশাশুনি থানার কাকবাসিয়ায় নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২ জুলাই) বেলা ১১ টার দিকে লাশটি স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।
কাকবাসিয়া গ্রামের খেয়াঘাটের পশ্চিম পার্শে খোলপেটুয়া নদীতে অজ্ঞাত পরিচয়ের অনুমান ৬০ বছর বয়সী পুরুষের মৃতদেহ চরে আটকে ছিল। স্থানীয় দক্ষিণ পুইজালা গ্রামের মৃত দলিল সরদারের পুত্র গ্রাম পুলিশ বাবর উদ্দিন সরদার লাশটি দেখতে পেয়ে থানায় খবর দিলে এসআই ফণিভূষণ ঘটনাস্থানে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করেন। মৃতব্যক্তির গায়ের রং শ্যামলা, হালকা পাতলা গড়ন, উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, মুখে সাদাপাকা দাড়ি, মাথার চুল পাকা এবং পরনে চেকের লুঙ্গী ও গায়ে চেকের শার্ট ছিল। লাশটির কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি। ময়না তদন্তের জন্য লাশটি থানায় আনা হয়েছে। পুলিশ পরিদর্শন (ওসি) মোঃ আবদুস সালাম লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

#

বুধহাটা কলেঃ স্কুলে অভিভাবক সদস্য নির্বাচনে নজরুল ও প্রদীপ জয়ী

এস কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা বিবিএম কলেজিয়েট স্কুলে ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনে অভিভাবক সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। নির্বাচনে নজরুল ইসলাম ও প্রদীপ কুমার সাধু বিজয়ী হয়েছেন। মঙ্গলবার স্কুল কক্ষে গোপন ব্যালটের মাধ্যমে ভোট গ্রহন করা হয়।
সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন করা হয়। মাধ্যমিক পর্যায়ের ৮৭৮ জন ভোটারের মধ্যে ৪৮২ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। অভিভাবক সদস্য দু’টি পদে ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। যাদের মধ্যে নজরুল ইসলাম মোল্যা (হরিণ প্রতীক) ২৮১ ভোট পেয়ে ১ম স্থান ও প্রদীপ কুমার সাধু (চেয়ার প্রতীক) ২১১ ভোট পেয়ে ২য় স্থান ও বিজয়লাভ করেন। প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আমিরুল ইসলাম বাবু (মাছ) ১৭৯ ও রমজান আলি (ছাতা) ১৫৫ ভোট পেয়ে পরাজয় বরণ করেছেন। নির্বাচন পরিচালনা করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও প্রিজাইডিং অফিসার মোঃ বাকী বিল্লাহ। এরআগে কলেজ শাখায় সিরাজুল ইসলাম ও রেজবিদান, সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য পদে পিয়া সেন, শিক্ষক প্রতিনিধি পদে (মাধ্যমিক শাখা) স্বপন কুমার দাশ ও শিরিন সুলতানা এবং দ্বাতা সদস্য পদে এছমাইল হোসেন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

#

আশাশুনির কুল্যায় সড়কে ইজিবাইক দাড় করিয়ে পথরোধ

এস কে হাসান ::

আশাশুনি-সতাক্ষীরা সড়কের কুল্যার মোড়ে ইজিবাইক আড়াআড়ি দাড় করিয়ে সড়ক অবরোধ করা হয়েছে। ফলে এক ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। পুলিশ ঘটনাস্থানে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। মঙ্গলবার (২ জুলাই) সকাল ১০ টার দিকে এঘটনা ঘটে।
ইজিবাইক চালকরা জানান, সকাল ৯ টার দিকে তাদের ইজিবাইক কুল্যার মোড় দিয়ে চলাচলে বাধা দেয় মিনিবাস চালক-হেলপার ও স্টেশনের কর্মকর্তা/কর্মচারীরা। তারা কুল্যার মোড় ও কুলতিয়ার মোড়ে গিয়ে ইজিবাইক থেকে প্যাসেঞ্জার নামিয়ে নেয় এবং ইজিবাইকের চাবি খুলে নেয়। ইজিবাইকে রোগিও নিতে দেয়না। এখবর ছড়িয়ে পড়লে বহু ইজিবাইক চালক তাদের ইজিবাইক নিয়ে কুল্যার মোড়ের রাস্তায় অব্স্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ জানায়। ইজিবাইক সমিতির কেউ কেউ এসময় রাস্তা থেকে ইজিবাইক পাশে নিয়ে প্রতিবাদ জানানোর চেষ্টা চালায়। বাস চলাচল করাতে না পেরে এক পর্যায়ে মিনিবাস চালকরাও রাস্তায় বাস থামিয়ে ইজিবাইককে ঘেরারও করে রাখে। ফলে দীর্ঘ ১ ঘন্টা সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ভোগান্তিতে পড়ে অসংখ্য যাত্রী সাধারণ। খবর পেয়ে আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আবদুস সালাম ঘটনাস্থানে পৌছে রাস্তা থেকে সকল যানবাহন সরিয়ে নিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। উপজেলা চেয়ারম্যান এ বি এম মোস্তাকিম খবর পেয়ে ঘটনাস্থানে আসেন এবং অসহায় গরীব ইজিবাইক চালকদের সমস্যার কথা শোনেন এবং মিনিবাস চালকদের কথাও শোনেন। তিনি শান্তি বজায় রেখে সকল যানবাহন যাতে নির্বিঘেœ চলাচাল করতে পারে সেব্যাপারে জেলা প্রশাসকের সাথে কথা বলবেন বলে জানান।

#

বুধহাটায় অবৈধ ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য আটকে অভিযান

এস কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ও কুল্যার মোড়ে মেয়াদোত্তীর্ণ ও নিষিদ্ধ ঘোষিত পণ্য আটকে অভিযান চালানো হয়েছে। মঙ্গলবার বিকালে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
আশাশুনি উপজেলার বিভিন্ন বাজার ও স্থানে দোকানপাটে মহামান্য হাইকোর্ট কর্তৃক নিষিদ্ধ ঘোষিত পণ্যসামগ্রী ও মেয়াদোত্তীর্ণ দ্রব্যাদি এখনো রাখা ও বিক্রয় করা হচ্ছে। উপজেলা প্রশাসন এসব প্রতিরোধ অভিযান ও মোবাইল কোর্ট পরিাচলনা করে ইতিমধ্যে বহু মালামাল বিনষ্ট ও ব্যবসায়ীদেরকে জরিমানা করেছেন। এরপরও পুরোপুরি ভাবে এসব পণ্যের বিক্রয় বন্ধ হচ্ছেনা। স্যানেটারী ইন্সপেক্টর জি এম গোলাম মোস্তফা ও স্যানেটারী ইন্সপেক্টরের সহকারী মোক্তারুজ্জামান স্বপন মঙ্গলবার বুধহাটা বাজারে অভিযান চালিয়ে উত্তম চক্রবর্তীর দোকান থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য এবং সুশীল সাধুর দোকান থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জিরা, মধুমতি ও কনফিডেন্স লবণ জব্দ করেন। পরে কুল্যার মোড়ে দেবাশীষ সাধু ও প্রকাশের দোকানে অভিযান চালিয়ে বহু মালামাল জব্দ করে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।

#