আশাশুনি সংবাদ ॥ কালাবাগী বাজারে ঘর নির্মান নিয়ে ধুম্রজাল


795 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥ কালাবাগী বাজারে ঘর নির্মান নিয়ে ধুম্রজাল
মে ১০, ২০১৮ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::
আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ইউনিয়নের কালাবাগী বাজারে দোকান ঘর নির্মান নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে। জমিটি পাউবো’র না ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত বিষয়টি সুরাহা করতে সার্ভেয়ার নিযুক্ত করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ৬-৮ নং পোল্ডারের অধীন দরগাহপুর মৌজায় এলএ কেস নং ১১৪/৬৯-৭০ এ দক্ষিণ দরগাহপুর নামক স্থান (কালাবাগী বাজারে) পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধিগ্রহনকৃত জমি নদীর চর ভরাটের পর স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ জমি দখলে নিয়ে ভোগদখল করে আসছেন। শ্রীধরপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক তার দখলীয় জমিতে ২০১৬ সালে ঘর নির্মান শুরু করলে বাপাউবো শাহাপাড়া পওর শাখার উপ-সহকারী প্রকৌশলী/শাখা কর্মকর্তা খাইরুল ইসলাম ২১/১২/১৬ তাং অবৈধ স্থাপনা অপসারনের জন্য নোটিশ প্রেরণ করেন। আঃ রাজ্জাক জানান, তখন নির্মান কাজ বন্দ রাখা হয় এবং উক্ত জমিতে দোকান ঘর করার জন্য লীজ পেতে আবেদন করা হয়। যা প্রক্রিয়াধীন আছে। সেই পুরনো ভিতের উপর বাকী কাজ সম্পন্নের জন্য কাজ করা হচ্ছিল। এজমি ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত নয়। সুতরাং ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকতা কাজ বন্দ করাতে পারেন না। কাগজপত্র দেখানোর পরও তিনি ঘর নির্মান কাজ বন্দ করে দিতে চাইলে বাজারে উপস্থিত শত শত মানুষ নানা ভাবে প্রতিবাদ করেন। কোন দুর্ব্যবহার করা হয়নি।
দরগাহপুর তহশীল অফিসের ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা শ্যামল কুমার জানান, বাজারে খাস জমিতে কাজ করার খবর পেয়ে কাজ বন্দ করে দিয়ে আসি। তারা পুনরায় কাজ করতে থাকলে দ্বিতীয় দফায় কাজ বন্দ করতে যাই। কিন্তু তারা কাজ বন্দ করেনি এবং অসৌজন্য মূলক আচরণ করে। সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিজাবে রহমত জানান, ঘর নির্মানাধীন জমিটি পাউবো’র না ১নং খাস খতিয়ানভুক্ত তা নির্নয় করার জন্য সার্ভেয়ার নিযুক্ত করা হয়েছে। সার্ভেয়ার সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে সরেজমিন মাপ জরিপ শেষে প্রতিবেদন দিলে তখন জানাযাবে।
#
আশাশুনির শ্রীধরপুরে খাস জমিতে অবৈধ ঘর নির্মানের অভিযোগ
নিজস্ব প্রতিনিধি ::

আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গ্রামে ১ নং খাস খতিয়ানভুক্ত জমিতে অবৈধ ঘর ও প্রাচীর নির্মান কাজ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
শ্রীধরপুর গ্রামের মৃত সিরাজ সরদারের পুত্র মাজেদ সরদার শ্রীধরপুর ঝিলেরখালি (ঘাটের আগা) সড়কের জমি দখল নিয়ে ঘর নির্মান ও প্রাচীর নির্মান কাজ করছেন। এই কাজ করতে গিয়ে সড়কের উপর থেকে একটি বড় গাছও কর্তন করা হয়েছে। একই গ্রামের মিজান সরদারের স্ত্রী মাফুজা খাতুন খতিয়ান নং ১, দাগ নং ৫৭৯ এ ১.৩৮ শতক জমি ডিসিআর নিয়ে ৩ বছর যাবৎ ভোগদখল করে আসছেন। উক্ত জমির অংশ বিশেষ ও সড়কের জমি দখল নিয়ে ২ দিন আগে থেকে মাজেদ সরদার ঘর নির্মান শুরু করেন এবং একই সাথে সড়কের গাছ কেটে সড়কের উপর দিয়ে পাকা প্রচীর নির্মান কাজ করতে থাকেন। স্থানীয় জনতা প্রাচীর ভেঙ্গে দিয়েছেন। কিন্তু ঘর নির্মান কাজ অব্যাহত রয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য মনিরুল ইসলাম বলেন, সড়ক দখল নিয়ে নির্মান কাজ করা হচ্ছে জানতে পেরে কাজ না করার জন্য নির্মানকারী মাজেদ সরদারকে বলেছি। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা ভূমি কর্মকর্তার কাছে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে জোর দাবী জানান হয়েছে।
##