আশাশুনি সংবাদ ॥ খরিয়াটিতে আ’লীগের অফিস উদ্বোধন


204 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥ খরিয়াটিতে আ’লীগের অফিস উদ্বোধন
জুন ২, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ইউনিয়নের খরিয়াটিতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের অফিস উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার খরিয়াটি নতুন বাজারে এ অফিস উদ্বোধন করা হয়।

অফিস উদ্বোধনকালে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন, মাওঃ আমিন উদ্দিন। এসময় মাওঃ আবু সাইদ মলঙ্গী, মাওঃ আনছারুজ্জামান, আ’লীগ নেতা শেখ মশিউর রহমান, ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি ডাঃ মোশাররফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

#

প্রতাপনগরে মৎস্য ঘের দখল নিয়ে জমি মালিকের পুত্রকে মারপিট

এস কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগরে মৎস্য ঘের দখলকে কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জমির মালিকের পুত্রকে মারপিট করে জখম করা হয়েছে। শনিবার (২ জুন) সন্ধ্যায় প্রতাপনগরে কল্যাণপুরে এ ঘটনা ঘটে।
প্রতাপনগর দক্ষিণ বিলে সাড়ে ৪ বিঘা জমির একটি মৎস্য ঘের মাওঃ ফজলুল হক গাজী নিহত আনোয়ারুল ইসলামকে দুই বছরের জন্য ডীড দেন। কিন্তু পারিবারিক দ্বন্দ্বে আনোয়ারুল ইসলাম নিহত হলে তার স্ত্রী ও নিহতের পিতা মৎস্য ঘের করতে অস্বীকৃতি জানান। তখন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেনকে স্বাক্ষীরেখে কয়েকটি চুক্তি মোতাবেক নিহত আনোয়ারুলের বন্ধু তাহমিদ হোসেনকে ঘেরটি দেওয়া হয়। কিন্তু তাহমিদ হারির টাকা প্রদানে ব্যর্থ হলে জমি মালিক মাওঃ ফজলুল হক ঘেরটি নিজের দখলে নেন। এতে তাহমিদ ও তার সহযোগিরা ফজলুল হকের পরিবারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেন। তার ভাই ভ্যান চালক আসলামকে বিভিন্ন সময়ে রাস্তাঘাটে অপমান ও অপদস্ত করেন। শনিবার সন্ধ্যায় মাওঃ ফজলুল হকের পুত্র কুহার (১৮) কল্যাণপুর বাজার থেকে পার্শ্ববর্তী নানার যাচ্ছিলেন। কামরুজ্জামান কাজলের বাড়ির সামনের রাস্তায় পৌছলে সেখানে পূর্ব হতে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতাপনগরের হাবিবুর রহমান হাবির পুত্র উক্ত তাহমিদ হাসান (২০), আমজাদ হোসেনের পুত্র আশরাফুজ্জামান সবুজ (২২) ও আবির (১৮), আব্দুল হাই গাজীর পুত্র রুহান কুহারের উপর হামলা চালায়। তাদের অতর্কিত হামলায় আহত হয়ে কুহার মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে ঘটনাস্থানে পৌছলে হামলাকারীরা কেটে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে কুহারকে স্থানীয় ডাঃ ইসমাইল হোসেনের কাছে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

কুল্যায় সাংবাদিকের পরিবারের উপর হামলা আশাশুনি প্রেসক্লাবের নিন্দা ও আসামী গ্রেফতার দাবী
এস কে হাসান ::

আশাশুনির কুল্যায় সাংবাদিকের গাছ কাটায় বাঁধা দেওয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় সাংবাদিকসহ একই পরিবারের ৩ জন গুরুতর আহত হয়েছে। এব্যাপারে ৭ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাতনামা রেখে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা সূত্রে জানাগেছে, গত শুক্রবার উপজেলার কুল্যা গ্রামে সকাল ও দুপুরে দু’দফায় প্রতিপক্ষ ওই গ্রামের জামাত-শিবির ও বিএনপি ক্যাডার ইদ্রিস আলির পুত্র রুবেল, সবুর সরদারের পুত্র সুমন, আলী মুনছুর সরদারের পুত্র সেলিম, পুত্র ইদ্রিস, মৃত মোহর আলি সরদারের পুত্র সবুর ও আলী মুনছুরসহ আরও ৯/১০ জন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শেখ শামসুর রহমানের বাড়ীতে হামলা চালায়। এতে শামসুর রহমানের পুত্র ফেরদৌসকে অস্ত্রশস্ত্র ও আধলা ইটদিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথা ও সর্ব শরীরে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। তার ডাকচিৎকারে তার সহোদর সাংবাদিক এসকে হাসান সহ তার পরিবারের লোকজন ঘটনা স্থলে পৌছে ঠেকাতে গেলে তাদেরকেও মারপিট করে , ক্যামেরা, মোবাইল ফোন সহ নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পার্শ্ববর্তী লোকজন আহতদেরকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এব্যাপারে আশাশুনি থানায় সাংবাদিক এসকে হাসান বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলেও আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেপ্তার হয়নি। উল্লেখ্য, জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জেরধরে এসকে হাসানের পরিবারকে জব্দ করতে প্রতিপক্ষরা দীর্ঘদিন নানা ষড়যন্ত্র করে আসছিল। এব্যাপারে আশাশুনি প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক এসকে হাসান সহ তার পরিবারের উপর হামলার নিন্দা, প্রতিবাদ ও হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে বিবৃতি দিয়েছেন আশাশুনি প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম আহসান হাবিব, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জি এম মুজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জি,এম আল ফারুক সহ আশাশুনি প্রেসক্লাবে সকল কর্মকর্তাবৃন্দ।

#