আশাশুনি সংবাদ ॥ গুনাকরকাটি খানকায়ে আজিজীয়ায় ওরশ শুরু


477 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥ গুনাকরকাটি খানকায়ে আজিজীয়ায় ওরশ শুরু
ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার গুনাকরকাটি খানকায়ে আজিজীয়ায় ওরশ ও ফাতেহা শরীফ শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি’১৯) শুরু হয়েছে।
বাংলাদেশ ও ভারতের লক্ষ লক্ষ মুরিদ ও আশেকানের পদভরে জমজাট হযরত গাওছুল আযম দেহলবী (রহঃ) ও গাওছুল আযম খুলনবী (রহঃ) এর পাক ওরশ ও ফাতেহা শরীফের প্রধান মেহমান নূরে চশমে হযরতে ইমামে রব্বানী, গুলেবাগে মুজাদ্দেদী আলহাজ্ব হযরত শাহ্ আবু নসর আনাছ ফারুকী (রহঃ) খানকা শরীফে তাসরীফ এনেছেন। ভারতের বিভিন্ন রাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, রংপুর, সিলেট, যশোর, খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মুরিদান ও আশেকান ওরশ ময়দানে পৌছে গেছেন। শুক্রবার রাতে আম বয়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হয় ওরশের আনুষ্ঠানিকতা। ওরশ শরীফ মূলত দু’দিনের হলেও কার্যক্রম ও ওরশ কেন্দ্রীক বাজার চলবে প্রায় মাসব্যাপী। ওরশের শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে ব্যাপক সতর্কতাবলম্বন করা হয়েছে। আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে বিশাল স্বেচ্ছাসেবক তদারকিসহ প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার নাথের তত্ত্বাবধানে পুলিশ দল সার্বক্ষণিক দায়িত্বপালন করে চলেছেন। ওরশস্থলসহ আশপাশের বিশাল এলাকা এবং বিশেষ করে কুল্যা টু বাঁকা সড়কে চরম যানজটের সৃষ্টি হয়ে থাকে। পুলিশ বাহিনীকে শুক্রবার সকাল থেকে যানজট নিরসনে হিমশিম খেতে দেখাগেছে। তবে শতকষ্ট হলেও পুলিশের তৎপরতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।

#

মহিষাডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের মহিষাডাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সদস্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার দু’টি প্যানেলের ১০ জন প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।
স্কুলে ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনের লক্ষ্যে অভিভাবক সদস্য ৫টি পদে নির্বাচনের তফশীল ঘোষণার পর দু’টি প্যানেলে ১০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন। একটি প্যানেলে মনোরঞ্জন সরকার (প্রতীক হরিণ), দেবব্রত বিশ^াস (আম), আলিম উদ্দিন ঢালী (মোরগ), জগদীশ সরকার (মই) ও সংরক্ষিত মহিলা পদে কুসুম সরকার (গোলাপফুল)। অন্য প্যানেলে সঞ্জয় সরকার (ফুটবল), আছাবুর রহমান (মাছ), দীলিপ তরফদার (চেয়ার), মহিতোষ সরকার (ছাতা) ও সংরক্ষিত পদে চম্পা সরকার (কলস প্রতীক)। প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ বাকী বিল্লাহ প্রতীক বরাদ্দ করেন।

#

আনুলিয়ায় জাহাঙ্গীরের রূহের মাগফিরাত কামনায় মীলাদ মাহফিল

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার আনুলিয়া ইউনিয়নে হত্যাকন্ডের শিকার জাহাঙ্গীরের রূহের মাগফিরাত কামনায় মীলাদ ও দোওয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার ইউনিয়নের রাজাপুর একসরা বায়তুল ফালাহ জামে মসজিদে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
এলাকাবাসীর আয়োজনে সকাল ৮ টায় মিলাদ ও দোওয়া মাহফিল এবং জুম্মা বাদ তাবারক বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন। বিশেষ অতিথি ছিলেন আবু মুছা রনি, এসআই হাসানুর রহমান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী এস এম সাহেব আলি, জেলা পরিষদের সদস্য আঃ হাকিম, মেম্বার শওকত আলি, রকিব আহম্মেদ, জিয়াউর রহমান প্রমুখ। মিলাদ ও দোওয়া পরিচালনা করেন, ইমাম মাওঃ আইয়ুব আলি, সুপার মাওঃ শহিদুল ইসলাম ও ইমাম মাওঃ আঃ মজিদ। এলাকাবাসী কমিটির মধ্যে ইউনুছ ঢালী, হাসান ঢালী, সোহরাব মালী, মোস্ত গাজী, আলাউদ্দিন মালী, রইছুল ইসলাম, গাজী আক্তারুল, মুনছুর মোড়ল, জিয়া ঢালী প্রমুখ ব্যবস্থাপনায় ছিলেন।

#

গাবতলা হাই স্কুলে অনিয়মের মাধ্যমে কমিটি গঠনের চেষ্টা

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের গাবতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনিয়মের মাধ্যমে কমিটি গঠনের কার্যক্রম শুরুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এব্যাপারে সঠিক পদ্ধতিতে পুনরায় কমিটি গঠন প্রক্রিয়া শুরুর আবেদন জানানো হয়েছে।
এলাকাবাসী ও অভিভাবকদের পক্ষ থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগসূত্র ও অভিযোগকারীরা জানান, স্কুলের প্রধান শিক্ষক পরিমল কুমার দাশ প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে নানা অনিয়ম ও গোপনে গোপনে বিধি বহির্ভূত ভাবে কমিটি গঠন প্রক্রিয়া চালিয়ে আসছেন। ফলে পকেট কমিটি গঠন করে নিজের ইচ্ছেমত প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে ফায়দা লুটে আসছেন। এবারও তার ব্যত্যয় ঘটেনি। স্কুল এলাকায় কোন পত্রিকা আসেনা, এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে প্রধান শিক্ষক একটি পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিলেও মাইকিং করার বিধানকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে মাইকিং না করে, সময়ের মুখোমুখি হলে নিজে গোপনে গোপনে কয়েকটা স্থানে লিফলেট/নোটিশ লাগান। স্কুলের শিক্ষার্থী ও সহকারী শিক্ষকদেরকেও জানানো হয়নি। বিষয়টা তারা জানতে পেরে নমিনেশন জমাদানের শেষ দিন স্কুলে গিয়ে প্রধান শিক্ষককে না পেয়ে অফিস সহকারীর কাছে নমিনেশন পত্র পেতে চাইলে তিনি জানান, তার কাছে কোন নমিনেশনপত্র নেই। যেগুলো ছিল বিক্রয় হয়ে গেছে। বেলা ২ টার পরে আসেন। তখন প্রধান শিক্ষক আসবেন বলে জানান হয়। ২ টার পরে স্কুলে গেলে তখন শিক্ষা অফিস থেকে ফরম আনতে হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। ততক্ষণে অফিস সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় তারা নমিনেশনপত্র ক্রয় করতে ব্যর্থ হন। তারা তফশীলের মেয়াদ বৃদ্ধি করে আগ্রহীদের নির্বাচনে অংশ গ্রহনের সুযোগ দানের জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। প্রধান শিক্ষক পরিমল কুমার দাশ সাংবাদিকদের জানান, বিধি মোতাবেক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি, মাইকিং ও শিক্ষার্থীদের জানান হয়েছিল। এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব থাকায় কেন্দ্রে ছিলাম। ঐ দিন নমিনেশনপত্র স্কুলে রেখে যেতে স্মরণ ছিলনা। তবে নোটিশে স্কুল কিংবা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ে ফরম পাওয়া যাবে লেখা ছিল বলে তিনি দাবী করেন। অভিযোগ পাওয়ার পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে দায়িত্ব দিয়েছেন। অভিযোগকারীরা জানান, প্রধান শিক্ষক অভিযোগপত্রে স্বাক্ষরকারীদের ছেলে-মেয়েদের (শিক্ষার্থী) উপর চাপ প্রয়োগ ও ভয়ভীতি দেখিয়ে অভিভাবকদেরকে কৌশলে অভিযোগপত্রে স্বাক্ষর করেনি ইত্যাদি লিখিত কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে নিচ্ছে বলে দাবী করেন।

##

বুধহাটায় ভাইস চেয়ারম্যানপ্রার্থী হেনাগাজীর গণ সংযোগ

এস,কে হাসান ::

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হেনা গাজী বুধহাটা ইউনিয়নে গণ সংযোগ করেছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নেতাকর্মীদের নিয়ে গণ সংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করেন।
উপজেলার কুল্যা ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা মেম্বার, ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক, উপজেলা পরিষদের সংরক্ষিত সদস্য হেনা গাজী গণ সংযোগকালে বুধহাটার বেউলা দাসপাড়া শীতলা মায়ের মন্দিরে গমন করে আয়োজক, পুজারিদের সাথে মতবিনিময় ও লিফলেট বিতরণ করেন। প্রধান অতিথি ছিলেন বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিঃ আবম মোছাদ্দেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রার্থী হেনা গাজী ও এম এম সাহেব আলি। এসময় মন্দির কমিটির সভাপতি অমল দাস ও সেক্রেটারী রাজীব দাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

#

পূর্ব কাদাকাটিতে ভলিবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন

এস,কে হাসান ::
আশাশুনি উপজেলার পূর্ব কাদাকাটিতে ৮ দলীয় নক আউট ভলিবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে পূর্ব কাদাকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও জেকেটি বালিকা বিদ্যালয় মাঠে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
পূর্ব কাদাকাটি অনন্ত যুব সংঘ ও সুশীলা পাঠাগারের আয়োজনে খেলার শুভ উদ্বোধন করেন, ইউপি চেয়ারম্যান দিপংকর কুমার সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক মেম্বার বিমল কৃষ্ণ সরকার, সাবেক মেম্বার সুভাস চন্দ্র গাইন, ভবনাথ মন্ডল, অভিমান্য সরকার, হারান চন্দ্র মন্ডল, নিশিকান্ত সরকার। উদ্বোধনী খেলায় তেতুলিয়া যুব সংঘ ও হাড়ীভাঙ্গা ভলিবল একাদশ মুখোমুখি হয়। তেতুলিয়া ৩-১ গেমে জয়লাভ করে। ধারাভাষ্যে ছিলেন সাংবাদিক ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী অসীম কুমার চক্রবর্তী। খেলা পরিচালনা করেন মাষ্টার চিত্তরঞ্জন রায়, সহকারী পরিচালক দিপংকর মন্ডল।

#