আশাশুনি সংবাদ ॥ জাতীয় ফুটবল টুর্ণামেন্টের শ্রীউলা জয়ী


128 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥ জাতীয় ফুটবল টুর্ণামেন্টের শ্রীউলা জয়ী
সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট (অনুর্ধ্ব-১৭) দ্বিতীয় রাউন্ডের ২য় খেলায় শ্রীউলা ইউনিয়ন ফুটবল একাদশ জয়লাভ করেছে। বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) দরগাহপুর শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
বিকাল ৪ টায় বিপুল দর্শক সমাগমে অনুষ্ঠিত খেলায় শ্রীউলা ইউনিয়ন ফুটবল একাদশ ১-০ গোলের ব্যবধানে আনুলিয়া ইউনিয়ন ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে। খেলা পরিচালনা করেন শেখ মনিরুজ্জামান। সহযোগি রেফারী ছিলেন বিপুল খন, সঞ্জয় কুমার বিশ^াস ও শিমুল হোসাইন। ধারাভাষ্যে ছিলেন আশরাফ হোসেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) পাপিয়া আক্তার। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রাজিবুল হাসান, আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মেহরাব হোসেন, শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল, আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন, দরগাহর্পু ইউপি চেয়ারম্যান শেখ মিরাজ আলি, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক স ম সেলিম রেজা সেলিম, এসআই পিযুষ কান্তি, আশাশুনি প্রেস ক্লাব প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জি এম মুজিবুর রহমান, সাংবাদিক সোহরাব হোসেন, গোলাম মোস্তফা, শেখ হিজবুল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। শনিবার একই মাঠে কুল্যা ইউনিয়ন দল ও খাজরা ইউনিয়ন দল মুখোমুখি হবে।

#

শিক্ষার্থী মারপিট ও শিক্ষকের সম্মান হানির অভিযোগ নিয়ে ধুম্রজাল

এস,কে হাসান ::

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার চাম্পাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক কর্তৃক শিক্ষার্থীকে মারপিট ও শিক্ষকের সম্মান হানির অভিযোগ নিয়ে ধু¤্রজালের সৃষ্টি হয়েছে।
গোয়ালডাঙ্গা গ্রামের ই¯্রাফিল সরদারের পুত্র আলবাদ হোসেন উক্ত বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র। ৩১ আগষ্ট মৃত তাবারক সরদারের পুত্র মিজানুর রহমান স্কুলে ঢুকে আলবাদকে বেদম মারপিট ও হেনস্থা করলে সে আতঙ্কে কান্নাকাটি ও চিৎকার শুরু করে। এরপর তিনি শ্রেণি কক্ষে ঢুকে শিক্ষকের সাথে অশালীন আচরণ ও হুমকী ধামকী দেন। পরে আলবাদের বাড়িতে গিয়ে তার দাদাকেও মারধর করেন, Ñএমন অভিযোগ এনে ইউএনও বরাবর অভিযোগ করেন আলবাদের মা। এ সম্পর্কে অভিযুক্ত মিজানুর ও প্রতিবেশীরা জানান, বাদীর ছেলে ক্লাসে ও বাইরে প্রায়শঃই তার পুত্র মোজাহিদের মাথাসহ শরীরে কিল বা আঘাত করে ভয় দেখাতো এবং লাথি মেরে উত্যক্ত করতো। ঘটনার দিন স্কুলে গিয়ে বিষয়টি ম্যাডামকে জানালে তিনি আমার কথা শুনতে রাজি হননি, বরং ছেলেকে বলতে বলেন। আমার ছেলেকে মারে কেন তার কোন সদুত্তর বা ব্যবস্থা নেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এনিয়ে কোন অসদাচরণ করা হয়নি। আমাকে দেখে বাদির ছেলে আলবাদ পার্কে খেলা করার স্থানে দৌড়ে যাওয়ার সময় পড়ে গিয়ে আঘাত প্রাপ্ত হয়। আমি তাকে মারিনি। সেখান থেকে বাধ্য হয়ে আমি বাড়িতে ফিরে ্আসি তার দাদার সাথেও দেখা হয়নি। পারিবারিক শত্রুতার কারনে এটিকে রং মাখিয়ে আমাকে হেয় করতে অপচেষ্টা চালান হচ্ছে বলে তিনি দাবী করেন।

#

বুধহাটার শত বর্ষোর্দ্ধ বয়সী রহিম বক্সের দাফন সম্পন্ন

এস,কে হাসান ::
আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের কুল্যার মোড় এলাকার ১১০ বছর বয়সী আঃ রহিম বক্স ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি অইন্না ইলায়হি রাজেউন)। বৃহস্পতিবার বাদ জোহর নামাজে জানাযা শেষে তাকে দাফন করা হয়েছে।
বুধহাটা গ্রামের মৃত বছির সরদারের পুত্র রহিম বক্স এলাকার সর্বেক্ষা বেশী বয়সের ব্যক্তি ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছিলেন। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে কুল্যার মোড়স্থ নিজস্ব বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃতকালে তিনি ৫ কন্যা ও ২ পুত্রসহ অসংখ্য নাতি নাতনি, পুতা-পুতনি ও আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন।

#

বুধহাটার বিল্লালের মা ও বোন দু’ মাস উধাও!

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা গ্রামের বিল্লাল হোসেনের মা ও বোন ৩ ছেলেমেয়েকে নিয়ে প্রায় দু’ মাস উধাও হয়ে গেছে। অনেক খোজাখুঁজি করেও তাদের কোন সন্ধান পায়নি পরিবারের সদস্যরা।
আশাশুনির কচুয়া গ্রামের মোফাজ্জেল সরদারের কন্যা নুর নাহার খাতুন (৪০), তার কন্যা রাইমা খাতুন (২৫) রাইমার ২ পুত্র ও ১ কনাকে নিয়ে গত কোরবাণির ঈদের এক মাস আগে বাড়ি থেকে উধাও হয়ে যায়। রাইমার স্বামী আমিনুরও সেই থেকে উধাও রয়েছে। তাদের মোবাইল নম্বর বন্ধ। তারা এ পর্যন্ত কারো সাথে যোগাযোগ করেনি। পরিবারের লোকজন তাদেরকে অনেক খোজাখুজি করেও কোন সন্ধান পায়নি। তারা বাড়ি থেকে উধাও হওয়ার পর থেকে বিল্লাল অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। ক্লিনিকে ১০ দিন ভর্তি ছিল। এখনো সে স্বাভাবিক নয়। কোন ব্যক্তি তাদের সন্ধান পেলে ০১৪০৬২৭১৯৫০ নম্বরে যোগাযোগ করতে পরিবারের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানান হয়েছে।

#