আশাশুনি সংবাদ ॥ বিরামহীন বৃষ্টিপাতে সকল ইউনিয়ন জলমগ্ন : বেড়ী বাঁধে ধ্বস


651 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥ বিরামহীন বৃষ্টিপাতে সকল ইউনিয়ন জলমগ্ন : বেড়ী বাঁধে ধ্বস
আগস্ট ১০, ২০১৬ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান,আশাশুনি :
আশাশুনি উপজেলার সকল ইউনিয়নে মাছের ঘের, আমন ফসলের বীজতলা ও রোপনকৃত ধান ক্ষেত জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। হাজার হাজার ঘরবাড়ি জলমগ্ন হয়ে যাওয়ায় জনজীবনে ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে। একাধিক স্থানে পাউবো বেড়ী বাঁধে ফাটল লেগেছে, তবে দু’টি পয়েন্টে বাাঁধের অবস্থা মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে।

বর্ষা মৌসুমের বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছিল বেশ আগে থেকে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে একাটানা প্রবল ও মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হওয়ায় উপজেলার সকল ইউনিয়নের মৎস্য ঘের ও আমন ধানের বীজতলা পানিতে নিমজ্জিত হয়ে গেছে। (বুধবার) সারাদিন থেমে থেমে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় পরিস্থিতি আরও প্রকট হয়ে উঠেছে। ফলে সকল ইউনিয়নে বিশেষ করে বুধহাটা, আশাশুনি, শ্রীউলা, আনুলিয়া, প্রতাপনগর, খাজরা, কাদাকাটি, কুল্যা ও বড়দল ইউনিয়নে কমপক্ষে ৫/৬ হাজার কাচা ঘরবাড়ি পানিতে নিমজ্জিত বা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। এসব স্থানের বাসিন্দারা চরম বিপাকে রয়েছে। বুধহাটা, আশাশুনি, বড়দল, কুল্যা, কাদাকাটি, শ্রীউলা, খাজরা, শোভানলী ইউনিয়নের চাষীরা তাদের আমন ধান চাষের জন্য তৈরিকৃত বীজতলা পানিতে নিমজ্জিত হওয়ায় মুষড়ে পড়েছেন। দুর্মূল্যের বাজারে হাজার হাজার টাকা ব্যয়ে তৈরিকৃত বীজতলা নষ্ট হওয়ার উপক্রমে তারা ধান চাষ নিয়ে সংশয় গ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। অনেক চাষী ইতিমধ্যে ধান রোয়ার কাজও করেছেন।

যা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় পচে নষ্ট হতে পারে ভেবে হতাশ হয়ে পড়েছেন। উপজেলার সকল ইউনিয়নে হাজার হাজার একর মৎস্য ঘের প্রবল বৃষ্টিপাতে একাকার হয়ে যাওয়ায় মৎস্য চাষীরা চরম বিপাকে পড়েছেন। উপজেলার বিভিন্ন খাল-বিলে জাল নিয়ে সাধারন মানুষকে মাছ ধরার লড়াইয়ে নামতে দেখা গেছে। কেউ কেউ ঘেরের মধ্যে সাবু দানা জালিয়ে, চিড়া, চিনি ঢেলে মাছ ধরে রাখার প্রয়াস চালাচ্ছেন। এদিকে মঙ্গলবার রাতে এবং বুধবার সকালে কাকবাসিয়া ও আশাশুনির দয়ারঘাট-জেলেখালী বেড়ী বাঁধে ফাটল ধরলে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। কাকবাসিয়া বাঁধ উপচে ও ধ্বস নেমে ভিতরে পানি ঢুকতে থাকলে ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটনের নেতৃত্বে শত শত মানুষ বাঁধ রক্ষায় নেমে আসে। বাধে বাঁশ, ডাল-পাতা, মাটির বস্তা ও মাটি ফেলে রক্ষার কাজ করা হয়। দয়ারঘাটে বাঁধের অবস্থাও খুবই ভয়াবহ। সেখানে ইউপি চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিলনের নেতৃত্বে বাঁধ রক্ষায় কাজ চলছে। বাঁশের পাইলিং, বস্তায় মাটি ভরে ফেলাসহ বাঁধ রক্ষার কাজ করা হচ্ছে। এছাড়া পানি নিস্কাশন ব্যবস্থার জন্য কাজ করা হচ্ছে। উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুষমা সুলতানাসহ প্রশাসনের অনেক কর্মকর্তা ঘটনাস্থান পরিদর্শন ও সমস্যা মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছেন।
###

শ্রীউলায় পানি নিস্কাশনের পথ বন্দ করায় দুর্ভোগ চরমে

এস,কে হাসান,আশাশূনি :
আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলায় পানি নিস্কাশনের পথ বন্দ করে দেয়ায় একটি পরিবার চরম বিপাকে পড়েছে। এব্যাপারে সহকারী জজ আদালতে প্রতিকার প্রার্থনা করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Exif_JPEG_420
অভিযোগে প্রকাশ, শ্রীউলা ইউনিয়নের বকচর গ্রামের আব্দুস সামাদ সরদারের সাথে স্থানীয় একটি স্বার্থান্বেষী মহলের জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে তার পানি নিস্কাশনের পথ বন্দ করে দেয়ায় পরিবারটি পানি বন্দি হয়ে পড়েছেন। ফলে তার বসতবাড়ি জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। বাড়ির বিভিন্ন প্রাজাতের ফলজ বৃক্ষ মারা যাচ্ছে। ক্ষেতের ফসল নষ্ট ও পুকুর পানিয়ে নিমজ্জিত হয়ে মাছ ভেসে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। এব্যাপারে পানি নিস্কাশনে বাধা সৃষ্টি করায় তিনি বাদী হয়ে আশাশুনি সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। জলাবদ্ধতা ও ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেতে এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে ন্যায় বিচার পেতে বিচার বিভাগের পাশাপাশি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপন কামানা করেছেন।
###

আশাশুনিতে গাভী পালন বিষয়ক প্রশিক্ষণ

এস,কে হাসান,আশাশুনি :
আশাশুনি গাভী পালন বিষয়ক ৩ দিনের প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। (বুধবার) পাথেয় ট্রেনিং সেন্টারে এ প্রশিক্ষণ শেষ হয়।

লাইভলীহুড সিকিউরিটি প্রজেক্ট ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ আশাশুনি এডিপির আয়োজনে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন, উপজেলা প্রাণি সম্পদ অফিসের আঃ রশিদ, আশাশুনি এডিপির টেকনিক্যাল স্পেশালিষ্ট ইকোনমিক্যাল ডেভলপমেন্ট অফিসার শেখ মাসুদুল হাসান ও প্রোগ্রাম অফিসার পলভক্ত মন্ডল। এডিপি কর্তৃক প্রদত্ব দুগ্ধবতী গাভী-বাছুর প্রাপ্ত ৩০ জন মহিলাকে নিয়ে ৩ দিনের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে গাভী পালন বিষয়ে বিস্তারিত প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

ক্যাপশান ঃ আশাশুনিতে গাভী পালন বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে আলোচনা রাখছেন শেখ মাসুদুল হাসান।
###

আশাশুনিতে কৃষি ক্ষেত্রে মোবাইল ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষন

এস,কে হাসান, আশাশুনি :
আশাশুনি কৃষি ক্ষেত্রে মোবাইল ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। (বুধবার) পাথেয় ট্রেনিং সেন্টারে এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।

লাইভলীহুড সিকিউরিটি প্রজেক্ট ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ আশাশুনি এডিপির আয়োজনে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণ প্রদান করছেন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জিয়াউল হক, আশাশুনি এডিপির টেকনিক্যাল স্পেশালিষ্ট ইকোনমিক্যাল ডেভলপমেন্ট অফিসার শেখ মাসুদুল হাসান ও প্রোগ্রাম অফিসার পলভক্ত মন্ডল। প্রশিক্ষনের সার্বিক সহযোগিতায় আছে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর, আশাশুনি।
###

আশাশুনিতে মোবাইল কোর্টে ৩ জনকে সাজা ও জরিমানা

এস,কে হাসান, আশাশুনি :
আশাশুনিতে মোবাইল কোর্ট পরিাচলনা করে দু’জনকে কারাদন্ড ও একজনকে জরিমানা করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুষমা সুলতানা আদালত পরিচালনা করেন।

এএসআই ফেরদৌস অভিযান চালিয়ে দরগাহপুর গ্রামের গহর আলি সরদারের পুত্র ফারুক হোসেনকে ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ এবং মানিকখালী গ্রামের মৃতঃ নুর আলি গাজীর পুত্র কাজল ইসলামকে ২০ গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেফতার করেন। এএসআই মনিরুজ্জামান পৃথক অভিযানে ফকরাবাদ গ্রামের মৃতঃ যোতিন্দ্র নাথ মন্ডলের পুত্র বিধান মন্ডলকে মাদকাসক্তির অভিযোগে আটক করেন। আদালতে ফারুককে ৩ মাসের ও কাজলকে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং বিধানকে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।