আশাশুনি সংবাদ ॥ বুধহাটায় আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা


205 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
আশাশুনি সংবাদ ॥ বুধহাটায় আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা
জুন ১, ২০১৯ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটায় পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে আইন শৃংখলা বিষয়ক বিশেষ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১ জুন) বেলা ১১ টার দিকে বুধহাটা বিবিএম কলেজিয়েট স্কুল ক্যাম্পাসে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিঃ আ ব ম মোছাদ্দেকের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে আলোচনা রাখেন, আশাশুনি থানার নবাগত পুলিশ পরির্দশক (ওসি) মোঃ আবদুস সালাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, এসআই আবু হাসান। সভায় বুধহাটা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শফিউল আলম খোকন, মেম্বার রেজওয়ান আলি, মেম্বার মতিয়ার রহমান, মেম্বার আলতাফ হোসেন, মেম্বার শীষ মোহাম্মদ জেরী, ব্যবসায়ী মানিক হোসেন, আছাদুল ইসলাম, বিভাষ দেবনাথ প্রমুখ আলোচনা রাখেন। সভায় আসন্ন ঈদ উল ফিতরকে সামনে রেখে ঈদের আগে, ঈদ এর দিন ও ঈদ অনুষ্ঠানের পরে যাতে বুধহাটা বাজারসহ পাশর্^বর্তী সকল এলাকায় আইন শৃংখলা ভাল থাকে সেব্যাপারে সকলকে সজাগ থাকতে আহবান জানান হয়। কোন প্রকার বিশৃংখলার সম্ভাবনা দেখা দিলে ও শৃংখলা ভঙ্গের চেষ্টা করা হলে সাথে সাথে থানাকে অবহিত করতে এবং সন্ত্রাস, জুয়া, মাদক ও বেআইনী তৎপরতা না ঘটতে পারে সে ব্যাপারে জন প্রতিনিধি, গ্রাম পুলিশ, ব্যবসায়ীসহ সকলকে সতর্কতার সাথে কাজ করতে আহবান জানান। তিনি বলেন, কেউ আইন শৃংখলা লংঘনের চেষ্টা করলে এবং কোন বেআইনী কর্মকান্ড করার সহযোগিতা করলে তাদেরকে কঠোর হাতে দমন করা হবে। পুলিশের সাথে সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

#

দরগাহপুরে অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

এস,কে হাসান ::
আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুরে পবিত্র ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে অসহায় দরিদ্র পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে শ্রীধরপুর ফ্রেন্ডশীপ এসোসিয়েশন ঈদ সামগ্রী বিতরণ করে।
এসোসিয়েশনের পক্ষে কামাল হোসেনের নেতৃত্বে এলাকার ১৬০ জন হতদরিদ্র ও প্রবীন ব্যক্তির হাতে সিমাই, চিনি, দুধ ও বাদামের একটি করে প্যাকেট তুলে দেওয়া হয়। এসময় এসোসিয়েশনের মোস্তাফিজুর রহমান সবুজ, শামীম, নাছির উদ্দিন গাজী, বাপ্পী, হাফিজুর রহমান, আঃ রাজ্জাক, আঃ খালেক, আলতাফ হোসেন, ফুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

#

আশাশুনি সাব রেজিষ্ট্রী অফিসে শনির দশা!
আবারও জাল কাগজপত্র দিয়ে জমি রেজিস্ট্রী

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি সাব রেজিস্ট্রী অফিসে হচ্ছেটা কি? একের পর এক জাল দলিল, জাল কাগজপত্র দেখিয়ে জমি রেজিস্ট্রীসহ অনিয়ম আর অনিয়মের অভিযোগে অফিসটিকে জনমনে আতঙ্ক ও ভীতিকর অবস্থায় পর্যবসিত করে তুলেছে।
সাব রেজিস্ট্রী অফিস একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ ও জনগণের আস্থার স্থান হিসাবে বিবেচিত। যেখানে মানুষের সহায় সম্পত্তির ন্যায্য মালিকানা প্রতিষ্ঠার পবিত্র দায়িত্ব পালনের জন্য সরকার গুরু দায়িত্ব সম্পন্ন ব্যক্তিদের অধিষ্ঠিত করে থাকেন। কিন্তু সেই পবিত্র স্থান এখন একের পর এক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে জর্জরিত হচ্ছে। ইতিপূর্বে বহু দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে এ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। একাধিক তদন্তও অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রতি দু’টি দলিল রেজিস্ট্রেশনের ব্যাপারে ব্যাপক তোলপাড় হয়ে গেছে রেজিস্ট্রী অফিস নিয়ে। এবার অভিযোগ উঠেছে ভুয়া বি এস রেকর্ড দেখিয়ে জমি রেজিস্ট্রী করানোর। জাল দলিলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন, শীতলপুর গ্রামের আঃ সাত্তার গাজীর স্ত্রী চায়রণ বিবি, পুত্র জালাল, জলিল, কন্যা ফিরোজা, হাফিজা ও মাহফুজা। দলিল দাতা একই গ্রামের মৃত কোমর উদ্দিন গাজীর পুত্র আবুল হোসেন, কোরবান আলি ও রবিউল ইসলাম। দলিলের স্বাক্ষী ও সনাক্তকারী একই গ্রামের মৃত মহররম আলি গাজীর পুত্র আঃ বারী এবং স্বাক্ষী ধান্যহাটি গ্রামের মৃত তারক চন্দ্র মন্ডলের পুত্র শম্ভু কুমার মন্ডল। জমি ক্রয় করেছেন একই গ্রামের মৃত আঃ ছাত্তার গাজীর পুত্র খলিলুর রহমান। শীতলপুর মৌজায় বিএস খতিয়ান ৩২, ডিপি ৩২ এর সাবেক ২৩০, হাল ১৫২ দাগে বাড়ি শ্রেণির ০৫ শতক, সাবেক ১৬৮ ও ১৬৯, হাল ১৫৪ দাগে বাড়ি শ্রেণির ১০ শতক, সাবেক ১৬৩, হাল ২১৪ দাগে ডাঙ্গা শ্রেণির ২৮ শতক ও সাবেক ১৬৪, হাল ২১৬ দাগে বাড়ি শ্রেণির ১৭ শতক জমির রেকর্ডীয় মালিক আব্দুস ছাত্তার গাজী হলেও দাতারা উক্ত বিএস রেকর্ড জাল করে তাতে তাদের নাম বসিয়ে জাল রেকর্ড তৈরি করে তা দেখিয়ে গত ২৮/০৪/১৯ তাং আশাশুনি সাব রেজিস্ট্রী অফিসে ১০৯১ নং কোবলা দলিল সম্পাদন করেন। এব্যাপারে রেকর্ডীয় মালিক আঃ ছাত্তারের ওয়ারেশগণ দুর্নীতি দমন কমিশন খুলনা ও জেলা রেজিস্ট্রার সাতক্ষীরাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুলিপি প্রদান করে সাব-রেজিস্ট্রার আশাশুনি বরাবর অভিযোগ করেছেন। ফলে দাতা, গ্রহিতা, স্বাক্ষী, সনাক্তকারী এবং ডিড রাইটাররা অপরাধ থেকে বাঁচতে দৌড় ঝাঁপ শুরু করেছেন। রেজিস্ট্রী অফিস, দলিল লেখার সাথে জড়িত ও এসব ব্যাপারে খোজ খবর রাখেন এমন অনেকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, জন্ম সনদ, ন্যাশনাল আইডি কার্ড, রেকর্ডসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র দলিল লেখার কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট বিশেষ একটি চক্র জাল ও তঞ্চকীপূর্ণ নকল করে দলিল রেজিস্ট্রী কাজ সম্পাদনের ব্যবস্থা করতে তৎপর রয়েছেন। সেটেলমেন্ট অফিস ও কম্পিউটারে বিশেষ পারদর্শী একটি মহলও একাজে জড়িত বলে তারা অভিযোগ করেন। ফলে তারা রেজিস্ট্রী অফিসে বড় অংকের টাকা চুক্তি করে জাল কাগজপত্র প্রদর্শন করে জালজালিয়াতির মাধ্যমে রেজিস্ট্রীর কাজ করে থাকেন। এব্যাপারে কেবলমাত্র রেজিস্ট্রী অফিসের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে দিয়ে তদন্ত হলে সবক্ষেত্রে সফলতা আসবেনা বলে তারা অভিমত ব্যক্ত করেছেন। দুর্নীতি দমন কমিশনসহ পৃথক তদন্তকারী দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে তদন্ত কাজ করে অপরাধী চক্রের ভীত গুড়িয়ে দেওয়ার জন্য এলাকার সচেতন মহল জোর দাবি জানিয়েছেন। উল্লেখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাব-রেজিস্ট্রার (অঃ দাঃ) আশাশুনি পার্থ প্রতীম মুখার্জ্জী অভিযুক্তদেরকে তদন্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে নোটিশ করেছেন। আগামী ১৬ জুন তদন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

#

আশাশুনিতে সাজাপ্রাপ্ত আসামীসহ গ্রেফতার- ২

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাজা প্রাপ্ত এক পলাতক আসামীসহ ২ আসামীকে গ্রেফতার করেছে। আসামীদের শনিবার সকালে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।
পুলিশ সুপার মোঃ সাজ্জাদুর রহমান (বিপিএম) এর দিক নির্দেশনায় আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুস সালাম এর নেতৃত্বে এসআই ইসমাইল হোসেন অভিযান চালিয়ে সাজাপ্রাপ্ত-৮৬৮/১৭ (ওয়ারেন্ট) আসামী খরিয়াটি গ্রামের মৃত শাহামত মলঙ্গীর পুত্র সামছুর রহমান মলঙ্গীকে খরিয়াটি বাজার হতে গ্রেফতার কারেন। অপরদিকে এএসআই মোকাদ্দেস হোসেন পৃথক অভিযানে সিআর-৪০৩/১৭ (ওয়ারেন্ট) আসামী কেয়ারগাতি গ্রামের জব্বার গাজীর পুত্র মোঃ ইব্রাহীম গাজীকে গ্রেফতার কারেন।

#

বুধহাটা প্রেসক্লাবের নিন্দা ও আসামী গ্রেফতার দাবী

এস,কে হাসান ::

আশাশুনি প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বুধহাটা আঞ্চলিক প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি এস কে হাসানসহ তার ভাই ও পরিবারের সদস্যদের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত ও চরম আইন লংঘনের ঘটনার ত্ব্রী নিন্দা ও আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন বুধহাটা আঞ্চলিক প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দ।
সন্ত্রাসী হামলার সাথে জড়িত ও এব্যাপারে দায়েরকৃত মামলার আসামীদের অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন, প্রেস ক্লাব সভাপতি এস এম আমির হামজা, সহ-সভাপতি সচ্চিদানন্দদে সদয়, সোহরাব হোসেন, সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল মামুন, যুগ্ম সম্পাদক জ্বলেমিন হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুম বাবুল, অর্থ সম্পাদক বিকাশ চন্দ্র বাছাড়, প্রচার সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন টুকু, ক্রিড়া সম্পাদক শেখ আরাফাত হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য গোলাম মোস্তফা, আবু হেনা কামরুজ্জামান, দিপংকর প্রমুখ।

#

আশাশুনি সদর ইউনিয়ন পরিষদে প্রকাশ্য বাজেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত

এস,কে হাসান ::

আশাশুনিতে প্রকাশ্য বাজেট অধিবেশন উন্নয়ন পরিকল্পনা ২০১৯-২০ সভা অনুষ্ঠিত হয়ছে। গতকাল সকালে পবিত্র আল কোরআন ও গীতা পাঠের মধ্য দিয়ে সদর ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে প্রকাশ্য বাজেট অধিবেশনে প্যানেল চেয়ারম্যান শাহীনুর আলম শাহীন শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন। পরিষদের আয়োজনে বাজেট অধিবেশনে প্যানেল চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম শাহিনের সভাপতিত্বে ইউপি সচিব প্রভাষ কুমার মন্ডল ২ কোটি ৫৩ লক্ষ ২২হাজার ৪শত৫৪ টাকা প্রকাশ্য বাজেট ঘোষনা করেন। সাংবাদিক এমএম সাহেব আলীর পরিচালনায় বাজেট অধিবেশনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন ইউপি সদস্য তারিকুল আওয়াল সেজে, মোছাঃ পারুল আক্তার, মনিরুল ইসলাম মনি, মিজানুর রহমান গাজী, দীলিপ কুমার মন্ডল, ইন্দিরা রানী মন্ডল, সন্তোষ কুমার মন্ডল, সিরাজুল ইসলাম, সাবেক ব্যাংকার আব্দুল কুদ্দুসম ডাঃ সদয় কুমার সরকার, ভূমি অফিসের জামে মসজিদের ইমাম নূরুজ্জামান, যুবলীগ নেতা পরেশ অধিকারী সহ মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, এনজিও প্রতিনিধি ও এলাকার বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। প্রকাশ্য উন্মুক্ত বাজেট অধিবেশনে এলাকার জনগন সরাসরি বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে কথা বলেন। জনগনের প্রশ্নের জবাবদেন ও সমস্যার সমাধানসহ ২০১৯-২০ উন্নয়ন পরিকল্পনা ইউনিয়ন বাসীর সহযোগিতা নিয়ে কাজ করা হবে।
ক্যাপশান-আশাশুনি সদর ইউনিয়ন পরিষদের প্রকাশ্য বাজেট অধিবেশনে জনগণের সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন প্যানেল চেয়ারম্যান শাহিন।

#

ইউপি চেয়ারম্যান মোনায়েম হোসেন জামিনে মুক্তি পাওয়ায় এলাকাবাসীর গণসংবর্ধনা প্রদান

এস,কে হাসান ::

আশাশুনির শোভনালী ইউনিয়নের ষড়যন্ত্রমূলক মোনায়েম হত্যা মামলা হইতে আদালত থেকে জামিনে মুক্তিপেয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান মোনায়েম হোসেন। তিনি জামিনে মুক্ত হয়ে বাড়ীতে ফিরে আসলে এলাকাবাসী তাকে গণসংবর্ধনা প্রদান করেন। গতকাল বিজ্ঞ সাতক্ষীরা জজ আদালত থেকে জানিয়ে মুক্ত হয়ে প্রথমে শোভনালী ইউপি চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি প্রভাষক ম. মোনায়েম হোসেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নজরুল ইসলামের সাথে তার নিজ বাসভবনে দেখা করে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। তিনি এরপর সন্ধ্যা ৭.৩০টার দিকে বিশাল মটর সাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে আশাশুনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিমের সাথে তার উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে দেখা করে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান কারাবরণকারী নেতা ইউপি চেয়ারম্যানকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেন নবাগত আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ আবদুস সালামের সাথে এ ষড়যন্ত্র মূলক হত্যা মামলার ব্যাপারে কথা হয়েছে। যারা জড়িত না তাদেরকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য ও যারা জড়িত তাদেরকে এ মামলায় অন্তভূক্ত করার। তিনি বলেন সকলে চায় এই হত্যাকান্ডের ব্যাপারে জড়িতদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি হোক কিন্তু কোন নির্দোষী ব্যক্তিকে প্রশাসন যেন হয়রানি না করে। পরে তিনি গ্রামের বাড়ীতে ফিরে গেলে এলাকাবাসী খবর পেয়ে হাজার হাজার নারী পুরুষ সেখানে উপস্থিত হয়ে চেয়ারম্যানকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে গণসংবর্ধনা প্রদান করেন। এলাকাবাসী তাদের চেয়ারম্যান সহ যাদেরকে ষড়যন্ত্রমূলক মোনায়েম হত্যা মামলা আসামী করা হয়েছে তাদের অব্যহতি দেওয়ার দাবী জানিয়ে প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এর আগে মহামান্য হাইকোর্ট ও সাতক্ষীরা জজ কোর্ট থেকে এ ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় চেয়ারম্যানের বড় ভাই হাজী আশরাফ উদ্দীন মকবুল, ভাইপো প্রভাষক সাংবাদিক শাহাদাত হোসেন টিটল, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউর রহমান, চাম্পাফুল কালী বাড়ী বাজার কমিটির সেক্রেটারী আক্তার হোসেন শাহীন, যুবলীগ নেতা নাজমুছ সাকিব লিটন সহ ১৯ আসামী জামিনে মুক্ত হয়।