ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীকে হত্যা : চারজনের ফাঁসি, ৯ জনের যাবজ্জীবন


114 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীকে হত্যা : চারজনের ফাঁসি, ৯ জনের যাবজ্জীবন
সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিকন্দি সরফ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সামাদ আজাদ হত্যা মামলায় চার আসামির মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। মামলার অপর ৯ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক মনির কামাল বুধবার এ আদেশ দেন। ১১ বছর আগে হত্যার এ মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, নুরুজ্জামান খান, জাহাঙ্গীর মাতবর, জুলহাস মাতবর ও চান মিয়া।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, আব্দুল হালিম মোল্লা, আজিজুল মাতবর, ফারুক খান, আজাহার মাতবর, মীজান মীর, আকতার গাজী, জলিল মাতবর, এমদাদ মাতবর ও লাল মিয়া। সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর মাহবুবুর রহমান এসব তথ্য জানান।

মামলা সূত্রে জানা যায়, শিক্ষক আব্দুস সামাদ আজাদ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৎকালীন চেয়ারম্যান হালিম মোল্লার কাছে অল্প ভোটে হেরে যান। পরবর্তী নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য তিনি এলাকায় পোস্টারিং করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে হালিম মোল্লা তাকে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। ২০১০ সালের ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় সামাদ আজাদকে শরীয়তপুরের পালং থানার সন্তোষপুর বাসস্ট্যান্ডে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় হালিম মোল্লা ও সাবেক চেয়ারম্যান আজিবর বালীসহ ৩০ জনকে আসামি করে পালং থানায় একটি মামলা করা হয়।