ইভিএমের চেয়ে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ : সিইসি


97 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ইভিএমের চেয়ে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ : সিইসি
অক্টোবর ৪, ২০২২ জাতীয় ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৫০ আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের পরিকল্পনা নেওয়া হলেও তা নিয়ে সংশয় রয়েছে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের। তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য সর্বোচ্চ ১৫০টি আসনে ইভিএম ব্যবহার করা। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন নিশ্চয়তা নেই। সরকারের কাছে এ প্রকল্পের আর্থিক সংশ্লিষ্টতা যথার্থ মনে না হলে তা বাতিল হতে পারে।

সিইসি বলেন, ইভিএমের চেয়ে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন বর্তমান কমিশনের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

মঙ্গলবার সকালে ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আমরা ইভিএম নিয়ে বিচার বিশ্লেষণ করেই সমর্থন দিয়েছি। আমরা দীর্ঘ সময় নিয়ে বিভিন্ন স্তরে, বিভিন্ন প্রক্রিয়া ও পদ্ধতিতে ইভিএমকে বোঝার চেষ্টা করেছি। এর মাধ্যমে ম্যানুপুলেশন হয় এমন কেউ দেখাতে পারেনি।

তিনি আরও বলেন, ইলেকশন মনিটরিং ফোরামকে বলেছি-আপনারা আপনাদের কাজ করে যান। আমরা আপনাদের কোন কাজে অংশগ্রহণ করতে পারব না।

ব্যালট বাক্সে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন বর্তমান কমিশনের কাছে গুরুত্বপূর্ণ জানিয়ে কাজী হাবিবুল আওয়াল বলেন, আমরা যেটা চাচ্ছি ইভিএম বা ব্যালট মূল কথা নয়। মূল কথা হলো সবাইকে চেষ্টা করতে হবে একটা সুন্দর, সুষ্ঠু অবাধ, নির্বিঘ্ন ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন। ওই নির্বাচনে ইভিএম থাকলো কি ব্যালট থাকলো সেটা বড় কথা নয়।