ইরান থেকে তেল-গ্যাস কিনতে আগ্রহী বাংলাদেশ


290 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ইরান থেকে তেল-গ্যাস কিনতে আগ্রহী বাংলাদেশ
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৬ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

ভয়েস অব সাতক্ষীরা ডটকম ডেস্ক :
আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার অবসানের পর ঢাকার সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কে আগ্রহী ইরান থেকে তেল ও গ্যাস আমদানি করতে চাইছে বাংলাদেশ।

বুধবার সচিবালয়ে ইরানের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ সাংবাদিকদের একথা জানিয়েছেন।

বিশ্বের অন্যতম প্রধান পেট্রোলিয়াম রপ্তানিকারক দেশ ইরানের প্রতিনিধি দলটি বাংলাদেশের সঙ্গে একটি দৃঢ় অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে আগ্রহ দেখিয়েছে।

তোফায়েল বলেন, “আমাদের গ্যাসের সঙ্কট আছে। তা কাটাতে আমাদের এলপিজি প্রয়োজন। ইরানও আমাদের কাছে গ্যাস রপ্তানি করতে চায়।

“তেল আমদানি করার একটা সিদ্ধান্তও আমাদের আছে। গভর্নমেন্ট টু গভর্নমেন্ট (জিটুজি) পদ্ধতিতে আমরা ৫০ ভাগ তেল আমদানি করি, বাকি ৫০ ভাগ টেন্ডারের মাধ্যমে। ইরান আগ্রহ দেখালে আমরা অবশ্যই আমদানি করব।”

আগামী মার্চে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ইরান সফরে গিয়ে এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন বলেও জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

জ্বালানি তেল রপ্তানিতে বিশ্বের শীর্ষ ১১টি দেশের অন্যতম ইরান।  পরমাণু কর্মসূচির কারণে আরোপিত আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর সম্প্রতি তেল উত্তোলন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইরান।

ইরানে পণ্য রপ্তানির বিষয়েও বাংলাদেশ গুরুত্ব দিচ্ছে বলে তোফায়েল জানান।

“আমরা বড় আকারে ইরানের সঙ্গে ব্যাবসা-বাণিজ্য শুরু করতে চাই। মধ্যপ্রাচ্যে ইরান একটি বড় বাজার। তৈরি পোশাক, পাটজাত দ্রব্য, ফার্মাসিউটিক্যাল পণ্য, চামড়াজাত দ্রব্য– এগুলোর জন্য ইরান ভালো বাজার।”

নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্কের সম্ভাবনাগুলোর দ্বার খুলতে ‍ইরানের ট্রেড প্রমোশন অর্গানাইজেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ রেজা মওদুদীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলটি ঢাকায় এসেছে।

রেজা মওদুদী সাংবাদিকদের বলেন, “বাংলাদেশের সঙ্গে ইরানের অনেক সামঞ্জস্য আছে। এগুলোকে কাজে লাগিয়ে আমরা অচিরেই একটি দৃঢ় অর্থনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারি।”

সম্প্রতি ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভাদ জারিফ ঢাকা সফরে এসে বলেছিলেন, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নের মাধ্যমে দুই দেশের জনগণের লাভের জন্য কাজ করতে চায় তার দেশ।