ইসলাম ধর্মকে রক্ষা করতে হলে জঙ্গিবাদ রুখে দিতে হবে : সাতক্ষীরার নবাগত পুলিশ সুপার


1337 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
ইসলাম ধর্মকে রক্ষা করতে হলে জঙ্গিবাদ রুখে দিতে হবে : সাতক্ষীরার নবাগত পুলিশ সুপার
আগস্ট ৪, ২০১৬ ফটো গ্যালারি সাতক্ষীরা সদর
Print Friendly, PDF & Email

এস এম সেলিম :
সাতক্ষীরা সরদ উপজেলার আগরদাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে জঙ্গি ও সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন বলেছেন, পৃথিবীর কোন ধর্মই মানুষ হত্যার শিক্ষা দেয় না। প্রতিটি ধর্মই মানুষের কল্যাণে কাজ করে। ইসলামও পৃথিবীতে প্রতিষ্ঠা  হয়েছিল শান্তি স্থাপনের জন্য। কিন্তু কিছু ধর্ম ব্যবসায়ীরা ধর্মের নামে অপবাখ্যা দিয়ে মানুষকে ভুল পথে নিয়ে যাচ্ছে। যা ইসলাম সমর্থন করে না।

তিনি বলেন, ইসলাম কে রক্ষা করতে হলে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ রুখে দিতে হবে। যারা এ দেশের জন্ম চায়নি সেই সমস্ত গোষ্ঠীরাই সাতক্ষীরাসহ সমগ্র বাংলাদেশে গ্রপ্ত হামলা চালাচ্ছে। বাংলাদেশ একটি ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র। আমরা সকলেই ধার্মিক কিন্তু ধর্মান্ধ নয়। মানুষ হত্যা করার কথা ইসলাম ধর্মের কোথাও লেখা নেই। মানুষ হত্যা করে পৃথিবীতে ইসলাম প্রতিষ্ঠা হয়নি। ইসলাম প্রতিষ্ঠা হয়েছে মানুষের ভালবাসার মধ্যদিয়ে।

২০১৩ সালের পর যারা এই স্তাক্ষীরার শান্ত জনপদকে গাছ কেটে, রাস্তা কেটে অশান্ত করার চেষ্টা করেছিল তাদের কেউ আইনের হাত থেকে রক্ষা পাবেনা। বর্তমানে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই জঙ্গি  হামলা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা দেশ স্বাধীন করেছি রক্ত দিয়ে। তাহলে কেন আবার স্বাধীন ভূখন্ডে বসবাস করে আমাদেরকে রক্ত দিতে হবে। দেশে যে সমস্ত জঙ্গি হামলা শুরু হয়েছে তা খুবই দু:খ জনক। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে শিক্ষার্থীদেরকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ শিখাতে হবে। আমাদের সকলের ঐক্য প্রচেষ্টা থাকলে এদেশ থেকে জঙ্গি ও সন্ত্রাস চিরতরে নির্মুল করা সম্ভব হবে। সদর উপজেলা আগরদাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে জঙ্গি ও সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪ টায় আগরদাড়ি আমিনিয়া কামিল মাদ্রাসায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। আড়গড়দাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজনুর রহমান মালির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা জেলার নবাগত পুলিশ সুপার মো: আলতাফ হোসেন।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কে এম আরিফুল হক, সহকারী পুলিশ সুপার আতিকুল হক, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মোর্শেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সরদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমদাদুল হক শেখ, তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল হাশেম, সাংবাদিক কল্যাণ ব্যানার্জী, বৈকারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের আসাদুজ্জামান অসলে, ঘোনা ইউনিয়ানের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ফজলুল রহমান, কুশখালী ইউনিয়ানের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শ্যামল, আগরদাড়ি আমিনিয়া কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম প্রমুখ।