‘ইসলাম বিরোধী কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করা মুসলমানের ঈমানী দায়িত্ব’


466 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
‘ইসলাম বিরোধী কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করা মুসলমানের ঈমানী দায়িত্ব’
এপ্রিল ৫, ২০১৭ আশাশুনি ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

মাসুদুর রহমান মাসুদ ::
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর চরমোনাই পীর সৈয়দ রেজাউল করিম বলেছেন, হাই কোর্টের সমানে ‘গ্রীক দেবীর মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে। তিনি নাকি ন্যায়ের প্রতীক। অথচ পৃথিবীর কোন আদালতের সামনে মূর্তি নেই। সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানের এই বাংলাদেশে ইসলাম বিরোধী এ জাতীয় কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করা মুসলমানদের ঈমানী দায়িত্ব। বুধবার বিকালে আশাশুনির চাপড়া গ্রামে ওলামা ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষণে উপরোক্ত কথা বলেন। দেশের ইসলাম বিরোধী কর্মকান্ডের বর্ণনা দিয়ে তিনি মুর্তি স্থাপনের প্রতিবাদে আগামী ২১ এপ্রিল ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রতিবাদ সমাবেশ করার ঘোষণা দেন। তিনি আরও বলেন, পৃথিবীতে আর কোন নবী রাসূল আসবে না। তাই ওলামারাদেরকে নবীর দাওয়াতের দায়িত্ব পালন করতে হবে। দেশে এত আলেম থাকলেও প্রত্যেকে ভিন্ন চিন্তা নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন পথে চলছে। দুঃখের বিষয় তারাই বেশী বিচ্ছিন্ন। যে আলেমের মধ্যে আল্লাহর ভয় আছে সেই নবীর ওয়ারিছ। চাপড়াস্থ খাদিজাতুল কোবরা (রাঃ) মহিলা মাদরাসা চত্বরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব আলাউদ্দিন। হাফেজ মাওঃ আঃ সবুরের পরিচালনায় সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন সাতক্ষীরা জেলা সভাপতি আলহাজ্ব রেজাউল করিম, হাফেজ মাওঃ আতাউর রহমান ও হাফেজ মাওঃ ইকবাল হোসেন প্রমুখ।
ক্যাপশান-আশাশুনি ওলামা ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন চরমোনাই পীর রেজাউল করিম।