উত্তর কোরিয়া সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান চান নারীরা


331 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
উত্তর কোরিয়া সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধান চান নারীরা
এপ্রিল ২৭, ২০১৭ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::
কোরীয় উপদ্বীপে পারমাণবিক যুদ্ধের আশঙ্কায় উদ্বিগ্ন গোটা বিশ্ব। এমন পরিস্থিতিতে উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে হোয়াইট হাউজে সিনেট সদস্যদের সঙ্গে মঙ্গলবার আলোচনায়ও বসেছে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। আর ঠিক সেই সময়েই পরমাণু যুদ্ধের শঙ্কায় উদ্বিগ্ন ৪০টি দেশের নারী নেতৃবৃন্দ এ সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানের দাবি জানালেন।

মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে সিনেট সদস্যদের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বসেছেন। ঠিক তখনই উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া সহ ৪০টিরও বেশি দেশের নারী নেতৃবৃন্দ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে যুদ্ধের পরিবর্তে উত্তর কোরিয়া ইস্যুর শান্তিপূর্ণ সমাধানের আহবান জানিয়ে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

এ সময় তারা কোরীয় উপদ্বীপে ধাপে ধাপে উত্তেজনা বৃদ্ধির কারণে তাদের উদ্বিগ্নতার কথা জানিয়ে বলেন, ‌’যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া যদি সংযত না হয় তাহলে অঞ্চলটি পরমাণু যুদ্ধের ভয়াবহতার সম্মুখীন হতে পারে। ‘

তারা আরো বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, একমাত্র কূটনৈতিকভাবেই কোরীয় উপদ্বীপের চলমান পরমাণু সঙ্কট ও যুদ্ধের আশঙ্কার সমাধান সম্ভব। এ নিয়ে কয়েকশ নারী নেতৃত্বের স্বাক্ষরিত স্মারকলিপিতে তারা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বলেন, ‘শান্তিই সবচেয়ে শক্তিশালী প্রতিরোধক। ‘

ইন্টারন্যাশনাল কো-অর্ডিনেটর অব উইমেন ক্রসের ক্রিস্টিন অ্যান জানান, প্রেসিডেন্টের পাশাপাশি সিনেট সদস্যদের কাছেও তারা স্মারক লিপি পাঠিয়েছেন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস হোয়াইট হাউসে উত্তর কোরিয়ার ইস্যুতে পুরো সিনেটকে ব্রিফ করেন। ব্রিফিংয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কবাণীকে উপেক্ষা করে উত্তর কোরিয়ার চলমান পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষার মতো উদ্ধতপূর্ণ আচণের বিষয় ও পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র তার মিত্র দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান কর্তৃক সামরিক প্রস্তুতি নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এসময় দেশটির জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক ডান কোটস ও জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ জোসেফ এফ ডানফর্ড উপস্থিত ছিলেন।