উত্তেজনার মধ্যেই আড়াই ঘণ্টা বৈঠক ভারতীয় ও চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রীর


195 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
উত্তেজনার মধ্যেই আড়াই ঘণ্টা বৈঠক ভারতীয় ও চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রীর
সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০ প্রবাস ভাবনা ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক ::

সীমান্ত নিয়ে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে ভারত ও চীনের মধ্যে। সম্প্রতি লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাদের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়। এ ঘটনার পর উত্তেজনা আরও তীব্র হয়। পরিস্থিতি বিবেচনায় সীমান্ত এলাকায় সৈন্য ও যুদ্ধ সরঞ্জাম বৃদ্ধি করে উভয় দেশ।

এমন অবস্থায় রাশিয়া সম্মেলনে যোগ দিয়ে বৈঠকে মিলিত হলেন চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল ওয়েই ফেংহে ও ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।
বৈঠক শেষে নিজের অফিসিয়াল টুইটার থেকে রাজনাথ সিং জানিয়েছেন, প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে চলেছে দু’জনের আলাপ-আলোচনা।

কিন্তু এত সময় ধরে দুই প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কী কথা হল, তার কিছুই জানতে পারেনি ভারতীয় গণমাধ্যম। দু’জনের কেউই মুখ খোলেননি। রাত পর্যন্ত সরকারিভাবেও এই বৈঠক নিয়ে আর কিছু ঘোষণা করা হয়নি।

সাংহাই কো-অপারেশন অরগানাইজেশনের বৈঠকে যোগ দিতে ভারত ও চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী এখন মস্কোয় অবস্থান করছেন।

এই সম্মেলনের বাইরে আলাদা করে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের জন্য সম্মত হন দু’জন।

লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (এলএসি) কীভাবে স্থিতাবস্থা ফিরিয়ে আনা যায়, তা নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা ছিল দু’জনের মধ্যে।

জেনারেল ওয়েই চীনের ক্ষেপণাস্ত্র বাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। বর্তমানে চীনের স্টেট কাউন্সিলর তিনি। সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের সদস্যও।

ভারত ও চীনের দুই দেশের প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের মধ্যে লাদাখ নিয়ে এমন বৈঠক এই প্রথম।

চলতি বছরের মে থেকে লাদাখ উত্তপ্ত। ভারত-চীন একে-অপরকে দায়ী করে আসছে।

এর ভেতর জুন মাসে প্যাংগং হ্রদের তীরে প্রাণঘাতী সংঘর্ষ হয় দু’পক্ষের মধ্যে। তার রেশ কাটিয়ে ওঠার আগেই গত মাসের শেষ দিকে ফের সেখানে সামরিক পদক্ষেপ নেয় চীন। প্রস্তুত হয় ভারতও।

এলএসি-তে এখনও মুখোমুখি অবস্থানে আছেন দুই দেশের সেনারা।