এগিয়ে চলছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ


117 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
এগিয়ে চলছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ
নভেম্বর ২৩, ২০২২ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

সড়ক ও জনপথ বিভাগের বাক সরলীকরণে ভূমি অধিগ্রহণের সম্ভাবতা যাচাই

এস, এম, আলাউদ্দিন সোহাগ ::

পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়কের উন্নয়ন কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে হাট বাজার এলাকায় আরসিসি, নির্দিষ্ট স্থানে কালভার্ট নির্মাণ, কার্পেটিং, প্যালাসাইটিং, টু-ওয়াল ও রিটেইনিং ওয়াল সহ মাটির কাজ প্রায় সম্পন্ন হওয়ার পথে। উন্নয়ন কাজের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে বাক সরলীকরণ। এ কাজে প্রায় ৬ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে ১৯ একর জমি অধিগ্রহণ করতে হবে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ থেকে বুধবার ভূমি অধিগ্রহণের সম্ভাবতা যাচাই, ভিডিও ও স্থিরচিত্র ধারণ করা হয়। উল্লেখ্য, পাইকগাছা ও কয়রা সহ পাশ^বর্তী এলাকার কয়েক লাখ মানুষের জেলা শহর খুলনা সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াতের একমাত্র অন্যতম সড়ক হচ্ছে পাইকগাছা-কয়রা-খুলনা সড়ক। কয়রা থেকে পাইকগাছা হয়ে বেতগ্রাম (আঠারোমাইল) পর্যন্ত ৬৪ কিলোমিটার সড়ক এক সময় অত্র এলাকার মানুষের ভোগান্তির অন্যতম কারণ ছিল। সড়কটি দীর্ঘদিন সংস্কার না করার ফলে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়। প্রয়াত সংসদ সদস্য আলহাজ¦ এ্যাডঃ শেখ মোঃ নূরুল হক সড়কটি উন্নয়ন করলেও সড়কের বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য বাক এবং সড়কের যথাযথ উন্নয়ন না করায় এর প্রকৃত সুফল থেকে বঞ্চিত ছিল অত্র এলাকার মানুষ। অবশেষে বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ¦ আক্তারুজ্জামান বাবু’র ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বাক সরলীকরণ করা সহ সড়কটির উন্নয়নে সাড়ে ৩শ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়। যার মধ্যে হাট-বাজার এলাকায় রয়েছে আরসিসি করণ, সমস্ত রাস্তা দুই লেয়ার বিশিষ্ট কার্পেটিং, ৩৪টি বাক সরলীকরণ, প্যালাসাইটিং, ২৩টি কালভার্ট, টু-ওয়াল, রিটেইনিং ওয়াল ও মাটির কাজ অন্যতম। উন্নয়ন কাজ করছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মোজাহার এন্টারপ্রাইজ। বাস্তবায়ন করছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। ইতোমধ্যে বাক সরলীকরণ ছাড়া অন্যান্য কাজ প্রায় সম্পন্ন হওয়ার পথে। সড়কের দৃশ্যমান এ উন্নয়ন এলাকার মানুষকে মুগ্ধ করছে। আগামী ডিসেম্বর প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও উল্লেখিত সড়কটি আঞ্চলিক মহাসড়কে রূপান্তরিত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। তা না হলে হয়তো প্রকল্পের মেয়াদ পুনরায় বাড়াতে হবে। সড়কের বিভিন্ন স্থানে অগণিত বাক থাকায় প্রায় প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। সরলীকরণ কাজ সম্পন্ন হলে সড়ক দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমে আসবে বলে জানিয়েছেন নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। প্রায় ৬ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে ৩৪টি বাক সরলীকরণে ১৯ একর ভূমি অধিগ্রহণের জন্য বরাদ্দ রয়েছে ৭২ কোটি টাকা। বুধবার সকালে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করে বাক সরলীকরণের প্রয়োজনীয় ভূমি অধিগ্রহণের সম্ভাবতা যাচাই, ভিডিও ও স্থিরচিত্র ধারণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেন সড়ক ও জনপথ বিভাগ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আনিছুজ্জামান মাসুদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী প্রসেনজিৎ পাল, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আজিম কাওছার, শামীম আহসান, সার্ভেয়ার আবুল বাশার ও আব্দুল হালিম। সড়কের সম্পূর্ণ উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন হলে এটিই হবে অত্র এলাকার মানুষের স্বপ্নের সড়ক এমনটাই জানিয়েছেন অত্র সড়ক উন্নয়ন কাজের রূপকার স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ¦ আক্তারুজ্জামান বাবু।

#