কপিলমুনিতে আবাসন প্রকল্পে বসবাসকারী পরিবারগুলি চরম আতংকে !


107 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনিতে আবাসন প্রকল্পে বসবাসকারী পরিবারগুলি চরম আতংকে !
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি ::

কপিলমুনির পার্শ্ববর্তী হরিঢালীতে আবাসন প্রকল্পের বসবাসকারী ৭৯ টি পরিবার রয়েছে চরম আতংকে। আবাসনের ৮০টি পরিবারের মধ্যে একই ব্লকের ৭নং ব্রাকে ঘরে বসবাসকারী মৃতঃ দেবেন্দ্র নাথ দাশের পুত্র সঞ্জয় দাশের কর্মকান্ডে গোটা আবাসনে বসবাসকারী ৭৯ পরিবার রয়েছে অজানা আতংকে।
অভিযোগ উঠেছে, সঞ্জয় একজন নিষ্কর্মা ও বহু অপকর্মের হোতা। সে প্রতিনিয়তই তার বাড়ীতে সন্ত্রাসীদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে আবাসনে বসবাসকারী অন্যান্যদেরকে আতংকিত করে তুলেছে। অভিযোগ রয়েছে সঞ্জয় তার বাড়ীতে অপরিচিত মহিলাদের দিয়ে দেহ ব্যাবসা চালিয়ে আসছে। যে কারণে বিভিন্ন সময় মোটর বাইক নিয়ে খদ্দেরদের ঢুকতে দেখা গেছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।
শুধু তাই নয়, তার কর্মকান্ডে বাধা দেওয়া বা প্রতিবাদ করলে তাদেরকে বিভিন্নভাবে ক্ষয়ক্ষতি করে আসছে। প্রতিবাদকারীদের ঘরের ভিতর গাঁজা রেখে ফাঁসানোর চেষ্টাসহ বহিরাগতদের এনে ভয়ভীতি হুমকি দিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করছে ওই সঞ্জয়। এছাড়াও ষ্ট্যাম্প চুরি, বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নামে টাকা হাতানো এবং প্রতারণা করে আবাসনের গরীব ও অসহায় মানুষের ঠকিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে হাজার হাজার টাকা। এ বিষয় আবাসনে বসবাসকারী ভুক্তভোগী প্রদীপ রায় বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর এক লিখিত অভিযোগ করে এর প্রতিকার প্রার্থনা করেছেন। বিষয়টির তদন্তের জন্য নির্বাহী কর্মকর্তা কপিলমুনি ভূমি অফিসের কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করেছেন।
সরেজমিন গিয়ে জানাগেছে, সঞ্জয় তার কর্মকান্ড অব্যাহত রেখে প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রসহ আবাসনে বসবাসরতদের নামে মিথ্যা ও হয়রানী মূলক মামলার করার চেষ্টা করছে। এতদ সংক্রান্ত বিষয়ে স্ট্যাম্প চুরির ঘটনাসহ পারিপার্শিক অন্যান্য বিষয়ের আংশিক সত্যতা স্বীকার করে সঞ্জয়। এ ব্যাপারে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয়রা।

#