কপিলমুনিতে উচ্ছেদ অভিযান,প্রভাবশালীরা রয়ে গেল ধরা ছোয়ার বাইরে !


79 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনিতে উচ্ছেদ অভিযান,প্রভাবশালীরা রয়ে গেল ধরা ছোয়ার বাইরে !
এপ্রিল ১৩, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার ::

‘কামান দিয়ে গন্ডার মারা হয়নি মারা হল মশা’। সোমবার ্্উপজেলা প্রশাসনের কপিলমুনি বাজারে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শেষে এমন মন্তব্য করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। উচ্ছেদ অভিযানের পূর্বে যেভাবে হাক ডাক দেয়া হয়েছিল অভিযানে তার বাস্তব প্রতিফলন হয়নি । যদিও বাজারের গলিপথ প্রশস্থ করার জন্য কিছু প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের টোল দোকান রোদ বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য মাথার এক চিলতে কাপড় বা পলিথিনের আচ্ছাদন অপসারন করা হয় । জীবন জীবিকার একমাত্র অবলম্বন এসব টোল দোকান কিম্বা ছোট ছোট পসরা অপসারনের পর ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা কিছুটা অসন্তোষ প্রকাশ করলেও বাজারের প্রভাবশালী ব্যক্তিদের অবৈধ স্থাপনা অপসারিত না হওয়ায় তারা ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। তারা জানিয়েছেন প্রভাবশালীদের লক্ষ লক্ষ টাকা মূল্যের অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে না দিয়ে শুধুমাত্র আমাদের অপসারন করা হলো এটা চরম বৈষম্য। অনেকটা দূর্বলের উপর সবলের আঘাত হিসাবে দেখছেন তারা। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে সকল অবৈধ স্থাপনা অপসারন করতে কোনো কার্পণ্য বা শৈথিলতা প্রদর্শন করা হবে না। তার পরেও কেন প্রভাবশালীদের অনেক অবৈধ স্থাপনা অভিযানকালে ছোঁয়া হলো না।
সূত্র জানায়, বাজারে সরকারী কবরস্থান মূল্যবান খাস জায়গা বেদখল সহ অনেক ব্যবসায়ী তাদের দোকান ঘরের সামনে রাস্তার অংশ নিয়ে পাকা সিড়ি বা জায়গা প্রশস্থ করেছে। এসব কিছু রয়ে গেছে ধরা ছোয়ার বাইরে। অচিরেই বাজারের সকল অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়ে সরকারী মূল্যবান সম্পত্তি দখল মুক্ত করার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

#