কপিলমুনিতে গৃহবধুর রহস্যজনক আত্মহত্যা !


1603 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনিতে গৃহবধুর রহস্যজনক আত্মহত্যা !
অক্টোবর ১৯, ২০১৬ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

 

কপিলমুনি প্রতিনিধি :
কপিলমুনিতে এক গৃহবধুর রহস্যজনক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ জানাযায়, খুলনার কপিলমুনির কাজিমূছা গ্রামের ঘের ব্যবসায়ী রোকন কাগজীর স্ত্রী সালমা বেগম (৩২) মঙ্গলবার রাতে তার বসত ঘরে আড়াতে ওড়না পেচিয়ে আতœহত্যা করে। বুধবার সকাল সাড়ে ৬ টার দিকে তার পরিবারের লোকজন ঘরের আড়াতে তার অচেতন দেহ ঝুলতে দেখে। এরপর কপিলমুনি ফাঁড়ি পলিশ মৃত দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
এদিকে এ ঘটনাটি তার পরিবারের সদস্যরা আতœহত্যা বললেও এ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে হয়তোবা রহস্য আছে, সঠিক তদন্তে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসতে পারে। স্থানীয়রা আরো বলেন, সালমাকে পরকীয়া সন্দেহের কারণে প্রতিদিন রাতে তার স্বামী ঘেরে যাওয়ার সময় বাড়ীর গ্রিলে তালা দিয়ে বন্দী রেখে যেত’।
সালমার বড় ভাই আঃ রশীদ বলেন, ‘২০০৬ সালের দিকে রোকনের সাথে সালমার বিয়ে দেই। তারপর থেকে আমার বোনকে রোকন শারীরিক ও মানষিক ভাবে নির্যাতন করে আসছে। আর তারই ধারাবাহিকতায় আমার বোনকে হত্যা করে আড়াতে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে’।
সালমার স্বামী রোকন বলেন, ‘আমি মঙ্গলবার রাতে মৎস্য ঘেরে ছিলাম। সকালে আমার স্ত্রীর আতœহত্যার খবর জেনে আমি বাড়ীতে আসি’।
এবিষয়ে কপিলমুনি পুলিশ ফাঁড়ী ইনচার্জ মোঃ বরকত হোসেন বলেন, ‘সালমার মৃত দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে প্রকৃত আতœহত্যা কি না সেটা ময়না তদন্তের পর নিশ্চিত করা যাবে’। এঘটনায় পাইকগাছা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে, যার নং ৪৮/১৬।