কপিলমুনিতে দোকান দখলকে কেন্দ্র করে স্বশস্ত্র হামলা, আহত-৫


557 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনিতে দোকান দখলকে কেন্দ্র করে স্বশস্ত্র হামলা, আহত-৫
মে ৩০, ২০১৭ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি ::
কপিলমুনিতে  মালিকানা স্বত্ত্বের দ্বন্দে দু’টি দোকানের ঘর দখলকে কেন্দ্র করে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এতে আঁখি বস্ত্রালয়ের মালিক আলহাজ্ব শেখ ইউনুচ সিদ্দিকী সহ ৪ জন রক্তাক্ত জখম হয়েছে। মূমুর্ষু অবস্থায় ইউনুচকে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ইউনুচের অবস্থা আশংকাজনক।
প্রতক্ষ্যদর্শীর  বিবরণে জানা যায়, গত ২৯ মে সোমবার কপিলমুনি বাজারে কাপড় পট্টিতে ঠিক ইফতারীর আগ মূহুর্তে কপিলমুনির বাবলু খাঁন, খসরু খাঁন, আসাদ খাঁন তাদের লোকজন নিয়ে শেখ ইউনুচ সিদ্দিকীর ব্যবসা প্রতিঠানের মধ্যে ঢুকে হামলা চালিয়ে ইউনুচ সিদ্দিকীর মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত যখম করে । এ সময় ইউনুচের শ্যালক আনিচ, রাজু, সুমন ও শামিম সহ দোকানের দু’ জন কর্মচারী হাবিব ও কেষ্ট বাধা দিলে তারাও জখম হয়। হামলাকারীরা দোকানে ব্যাপক ভাংচুর করে ক্ষতিগ্রস্থ করে সাটারে তালা লাগিয়ে দেয়।
প্রকাশ্য দিবালোকে এমন হামলার ঘটনা ব্যবসায়ীদের মাঝে রীতিমত আতংক তৈরী করে, এ সময় তারা দ্রুত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেন। পরে কপিলমুনির পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো রফিকুল ইসলাম ও এএসআই জাহাঙ্গীর হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এদিকে সৃষ্ট ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় দু’ পক্ষের বিরোধ রণক্ষেত্রে রুপ নিতে পারে বলে ধারণা করছেন ব্যবসায়ীরা।
এবিষয়ে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম বিপ্লব বলেন, ‘ঘটনা জানতে পেরে সোমবার রাতেই কপিলমুনিতে গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে, এখনো পর্যন্ত মামলা হয়নি’।