কপিলমুনিতে যেখানে সেখানে লাইসেন্স ছাড়াই সিলিন্ডার গ্যাস ও জ্বালানী তেল বিক্রি !


108 বার দেখা হয়েছে
Print Friendly, PDF & Email
কপিলমুনিতে যেখানে সেখানে লাইসেন্স ছাড়াই সিলিন্ডার গ্যাস ও জ্বালানী তেল বিক্রি !
জুলাই ৩১, ২০১৯ খুলনা বিভাগ ফটো গ্যালারি
Print Friendly, PDF & Email

পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি ::

কপিলমুনি বাজারসহ আশপাশের এলাকায় সরকারী অনুমোদন ছাড়াই পন্যের মত সিলিন্ডার গ্যাস ও জ্বালানী তেল বিক্রি হচ্ছে। বিভিন্ন জ্বালানী তেল বিশেষ করে পেট্রোল ও অকটেনের মত অতি দাহ্য পদার্থ যেখানে সেখানে বিক্রি হওয়ায় জননিরাপত্তা হুমকির মধ্যে রয়েছে। সরকারীভাবে মনিটরিং না হওয়ায় বিক্রেতারা নিয়মনীতির তোয়াক্কা করছেন না। গ্যাস সিলেন্ডার ও জ্বালানী তেল ব্যবসায় বিষ্ফোরক লাইসেন্স আবশ্যক হলেও কপিলমুনি বাজারে বিস্ফোরক লাইসেন্স ছাড়া অসংখ্য দোকানে বিক্রি হচ্ছে জ্বালানী তেল ও গ্যাস। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী অধিক লাভের আশায় যে যার মত দামে বিক্রি করছে জ্বালানী গ্যাস ও তেল।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ সব ব্যবসায়ীর অধিকাংশই বিস্ফোরক লাইসেন্স ছাড়াই খুলে বসেছেন গ্যাস সিলেন্ডার ও জ্বালানী তেলের ডিলারশীপ। যার কারণে বৈধ্যতা না থাকলেও প্রকাশ্যে তারা চালিয়ে যাচ্ছেন এ ঝুকি পূর্ন ব্যবসা। ফলে নিয়ম ছাড়াই ঝুঁকিপূর্নভাবে মজুদ হচ্ছে গ্যাসের সিলিন্ডার ও জ্বালানী তেল। এসব অবৈধ ডিলাররাই গ্যাস ও তেলের বাড়তি দাম, তেলে ভেজাল এবং পরিমাপে কারচুপি সহ নানা দূর্নীতি করে যাচ্ছে অহরহ।
খোঁজ নিয়ে আরো জানা যায়, কপিলমুনি বাজারে প্রায় অর্ধশত গ্যাসের ডিলার সহ বিক্রেতা অবৈধভাবে লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা করছেন। শুধু তাই নয়, ইলেকট্রনিকস্ এর দোকান, মুদি দোকান, হাড়িপাতিলের দোকানের সাথেও রয়েছে এল পি গ্যাস পেট্রোল ডিজেল বিক্রির ব্যবসা। এসব দোকানীদের নেই কোন বিস্ফোরক লাইসেন্স। সরকারী নিয়ম অনুযায়ী কেবল মাত্র লাইসেন্সের ভিত্তিতেই গ্যাস ও জ্বালানী তেল বিক্রয় করা যায়। কিন্তু লাইসেন্স বিহীন যেখানে সেখানে এ সব দাহ্য পদার্থ বিক্রির ঘটনায় সচেতনরা অবাক হয়েছেন।
নাম প্রকাশ না করার সর্তে এক জ্বালানী গ্যাস ও তেল েিক্রতা জানান, বৈধ ডিলারদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসুন্ধরা পদ্মা, মেঘনা, যমুনাসহ নানা কোম্পানীর নাম সাইন বোর্ডে লেখা থাকে। আর অনুমোদনহীন অবৈধ ব্যবসায়ীদের সাইন বোর্ডে এ সব নাম লেখা থাকে না। তিনি আরো বলেন, শুধু মাত্র ট্রেড লাইসেন্স অথবা ফায়ার সার্ভিসের অনুমতি নিয়ে কেউ গ্যাসের ডিলার হতে পারে না। জ্বালানী তেল ও গ্যাস বিক্রির মূল ভিত্তি হলো বিস্ফোরক লাইসেন্স। কিন্তু বিস্ফোরক লাইসেন্স প্রাপ্ত না হয়ে জ্বালানী তেল ও সিলিন্ডার গ্যাস বিক্রি সম্পূর্ন ভাবে আইননত নিষিদ্ধ। তাছাড়া প্রতিটি জ্বালানী তেল ও জ্বালানী গ্যাসের দোকানে অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র রাখার নিয়ম থাকলেও এর কোনটি এরা করছেন না। ফলে জননিরাপত্তা চরম ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। তাই ক্রেতা সাধারনের ঠকানোর পাশাপাশি জননিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশ বিস্ফোরক অধিদপ্তর এবং পরিদর্শকের লাইসেন্স বিহীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে যথাযত ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন সচেতন মহল।